ঝাড়গ্রামে মেডিক্যাল কলেজ, লোধা শবর সহ জনজাতিদের দাবি পূরণ, বালিতে ক্ষোভ, বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন

Administration Review Meeting at Jhargram

.

মণিরাজ ঘোষ, ঝাড়গ্রাম, ৭ অক্টোবর : গতকাল (৬ অক্টোবর), পশ্চিম মেদিনীপুরের পর আজ (৭ অক্টোবর) ঝাড়গ্রাম জেলার প্রশাসনিক সভাতেও (Administration Review Meeting) মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দরাজ-হস্তে দাবি পূরণ করলেন সমস্ত মহলের। একগুচ্ছ পরিষেবা ও উন্নয়ন মূলক প্রকল্পের শিলান্যাসও করলেন। এর মধ্যে সবথেকে উল্লেখযোগ্য হল, ঝাড়গ্রাম মেডিক্যাল কলেজের নির্মাণ কার্যের শুভ সূচনা করে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। ১০০ জন ছাত্র-ছাত্রী মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি হতে পারবেন বলেও তিনি জানিয়েছেন। অপরদিকে, ঝাড়গ্রামে যে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিলান্যাস করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী, আদিবাসী জনজাতি’র আবেদনকে গুরুত্ব দিয়ে, সেই ঝাড়গ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে রাখলেন, “সাধু রাম চাঁদ মুর্মু বিশ্ববিদ্যালয় ঝাড়গ্রাম।” মুখ্য সচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় বললেন, আদিবাসী সমাজের দাবি ও আবেদন’কে গুরুত্ব দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী আইন পরিবর্তন করে, এই বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করলেন। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ঝাড়গ্রাম জেলার শিলদার কামারবান্ধি গ্রামে জন্মগ্রহণ করা সাধু রামচাঁদ মুর্মু সাঁওতালি ভাষার একজন বিখ্যাত কবি। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্মরণ করিয়ে দিলেন, ঝাড়গ্রাম জেলায় প্রায় শতাধিক প্রাথমিক ও উচ্চ বিদ্যালয়ে অলচিকি ভাষায় পাঠদান ও শিক্ষক নিয়োগে তাঁর সরকারের অবদানের কথা। এছাড়াও, অলচিকি ভাষায় সাম্মানিক স্নাতক (অনার্স) ও স্নাতকোত্তর পাঠদানের কথাও উল্লেখ করলেন।
thebengalpost.in

.

অন্যদিকে, আদিবাসী, লোধা শবর, কুরমী সহ জনজাতি দের উন্নয়নে কোনরকম শৈথিল্য বা অজুহাত প্রশ্রয় না দেওয়ার বার্তা দিলেন জেলা প্রশাসনের উদ্দেশ্যে। লোধা শবর সহ আদিবাসীদের বাংলার আবাস যোজনায় বাড়ি নির্মাণ থেকে শুরু করে, একশো শতাংশ মানুষকে রেশন দেওয়ার বিষয়েও জেলা প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছেন। তপশিলি জাতি ও উপজাতিদের জন্য, মিউজিয়াম, ফুটবল অ্যাকাডেমি, কমিউনিটি হল, লোধা আশ্রম প্রভৃতিও ধাপে ধাপে তৈরি করার ওপর গুরুত্ব দিয়েছেন। লোধা শবর ও আদিবাসীদের শিক্ষা-দীক্ষা এবং তাঁদের অরণ্য কেন্দ্রিক জীবনকে গুরুত্ব দেওয়ার কথা বলেন প্রশাসনিক সভা থেকে। এছাড়াও, পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার মতোই ঝাড়গ্রামের ক্ষেত্রেও মাওবাদী ও হাতির হামলায় স্বজনহারাদের হাতে চাকরির নিয়োগপত্র ও অর্থ তুলে দেওয়া হল। বেলপাহাড়ির কনকদুর্গা মন্দিরের পুরোহিতের হাতে পুরোহিত ভাতার অর্থ তুলে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। কনকদুর্গা মন্দির ছাড়াও লোধা শবরদের গুপ্তমণি মন্দির সংস্কারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী ১ কোটি টাকা দিলেন। জহর থান, মাঝির থান সংস্কারের বিষয়েও করলেন ঘোষণা। মাওবাদী প্রসঙ্গে তিনি পরোক্ষে বিরোধী দল বিজেপি’র দিকে ইঙ্গিত করে বলেন, “কেউ বা কারা মাওবাদী আমদানি করতে চাইছে। অনেক কষ্টে রক্তাক্ত জায়গায় শান্তি ফিরিয়েছি, তা নষ্ট হতে দেওয়া যাবে না!”

thebengalpost.in
কনকদুর্গা মন্দিরের পুরোহিতের হাতে পুরোহিত ভাতার অর্থ তুলে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী :

.

অন্যদিকে, ঝাড়গ্রাম জেলা পরিষদের বন ও ভূমি কর্মাধ্যক্ষ মামণি মুর্মু মুখ্যমন্ত্রীর কাছে অভিযোগ করেন, “বালি ও মোরাম নিয়ে অবৈধ ব্যবসা চলছে, রাতের অন্ধকারে চলছে বালি পাচার, প্রশাসনের ভ্রুক্ষেপ নেই।” একথা শুনে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, “বালি নিয়ে কার এত ইন্টারেস্ট! জেলাশাসক ইমিডিয়েট স্টেপ নিন। বালি গাড়ি সিজ করুন এবং কয়েকজনকে গ্রেফতার করুন।” যদিও জেলাশাসক আয়েশা রানী এ সাফাই দেন, “প্রতিদিন রাতেই পুলিশ নজরদারি চালায়।” প্রাক্তন মুখ্য সচিব রাজীব সিনহা ঝাড়গ্রামে বাড়তে থাকা করোনার জন্য জেলা প্রশাসনকে সতর্ক করে দেন এবং মানুষকে সচেতন থাকতে বলেন। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ঝাড়গ্রাম জেলায় অন্যান্য রাজ্যগামী অনেক ট্রাক চলাচল করে এবং ঝারগ্রাম বর্ডার এলাকা, তাই সংক্রমণ বাড়ছে। একই সাথে তিনি বলেন, ঝাড়গ্রামের মানুষ মাস্ক ব্যবহার করছেন না, মাস্ক ব্যবহার করতে হবে।

thebengalpost.in
ঝাড়গ্রামের প্রশাসনিক সভায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় :

.

জেলা থেকে রাজ্য, রাজ্য থেকে দেশ প্রতি মুহূর্তের খবরের আপডেট পেতে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক বুক পেজ এবং যুক্ত হোন Whatsapp Group টিতে