শীত কোথায় এতো ভরা বসন্ত! মেদিনীপুর থেকে কলকাতা, ঝাড়গ্রাম থেকে নদীয়া ঠাণ্ডা গায়েব

বিজ্ঞাপন

দ্য বেঙ্গল পোস্ট বিশেষ প্রতিবেদন, সায়নী দাশগুপ্ত, ৮ জানুয়ারি: “ফুল ফুটুক না ফুটুক আজ বসন্ত”। করোনা ভ্যাকসিনের আগমণে, এমনটা মনে করতেই পারেন বঙ্গবাসী! তবে, শীতের দিনে হঠাৎ বসন্তের এই আগমণের প্রেক্ষিতে কবির এই পংক্তি আজ বড় বাস্তব। যদিও, প্রকৃতিগত ভাবে এই আবহাওয়া কতটুকু সুখদায়ক তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতেই পারে! হঠাৎ করেই জাঁকালো ঠাণ্ডা পড়েছিল বঙ্গে, আর হঠাৎ করেই তা উধাও। ভরা শীতে কনকনে ঠান্ডার বদলে হাজির ভরা বসন্তের ফুরফুরে হাওয়া। ভোরের দিকে হালকা শীতের অনুভূত হলেও, বেলা বাড়ার সাথে সাথেই যেন ফাল্গুন-চৈত্রের গরম। শীতের পোশাক পরে ঘামে নাজেহাল মেদিনীপুর থেকে কলকাতা, ঝাড়গ্রাম থেকে নদীয়ার বাসিন্দারা। উধাও উত্তুরে হাওয়া, তার বদলে হাজির বসন্তের দখিনা বাতাস। দুপুরের দিকে, শীতের পোশাক খুলে ফেলে, আপাতত কয়েকদিন বসন্তের বাতাসে মন মজলেও, চিন্তা পুনরায় শীত ফিরবে কিনা, তা নিয়েই!

thebengalpost.in
উধাও শীত :

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

প্রসঙ্গত, ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহ থেকে জানুয়ারির প্রথম দিন পর্যন্ত কনকনে শীতে কাঁপছিল বঙ্গ। নতুন বছরের দ্বিতীয় দিন থেকেই সেই ঠান্ডার আমেজ হঠাৎ করে উধাও! রাজধানী কলকাতা থেকে দুই মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম সহ গোটা দক্ষিণবঙ্গ জুড়ে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা স্বাভাবিকের থেকে ৫ ডিগ্রি বেশি বেড়েছে। এদিকে, আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস অনুযায়ী, আগামী কয়েক দিন তাপমাত্রা কমার কোনো সম্ভবনা নেই। আপাতত কয়েকদিন ঠান্ডা-গরম একসাথে নিয়েই চলতে হবে বঙ্গবাসীকে। আবহাওয়া দফতরের সূত্র অনুযায়ী, পশ্চিমী ঝঞ্ঝায় আটকে রয়েছে উওরের হাওয়া। বাতাসে জলীয় বাষ্প বেশি থাকায়, আর্দ্রতা জনিত অস্বস্তিও বজায় থাকবে। তবে, ভোরের দিকে ও রাতের দিকে শীতের আমেজ বজায় থাকবে। হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস অনুযায়ী, আগামী মকর সংক্রান্তিতে চেনা শীতের দাপট ফিরে আসতে পারে বঙ্গে, তার জেরে ঝাড়গ্রাম , দুই মেদিনীপুর সহ দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে ফের পারদ নামতে পারে ১০-১১ ডিগ্রি সেলসিয়াসে।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

জেলা থেকে রাজ্য, রাজ্য থেকে দেশ প্রতি মুহূর্তের খবরের আপডেট পেতে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক বুক পেজ এবং যুক্ত হোন Whatsapp Group টিতে