খড়্গপুর, ডেবরা, গড়বেতা, পিংলা, দাঁতনে পরিবার সংক্রমণ, শালবনী, কেশপুর, ঘাটালে সংক্রমণের হার কিছুটা কমে জেলায় ১৬৬, মৃত্যু ৪ জনের

THEBENGALPOST.IN
মেদিনীপুরে ফের সংক্রমিত ‌৩১ জন :
.

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, পশ্চিম মেদিনীপুর, ৪ অক্টোবর: পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের রিপোর্ট অনুযায়ী, শনিবার (৩ অক্টোবর) জেলায় করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ১৬৬ জন। আরটি-পিসিআর অনুযায়ী ১০৮, র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন অনুযায়ী ৫৪ ও ট্রুনেট অনুযায়ী ৪ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে বলে জানা যায়। জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০৫২৩। এই মুহূর্তে চিকিৎসাধীন আছেন ১৬২১ জন। এর মধ্যে, করোনা হাসপাতাল ও সেফ হোমে আছেন ২৯৯ জন। হোম আইশোলেশনে আছেন, ১৩২২ জন। গত চব্বিশ ঘণ্টায় ৪ জনের মৃত্যু’র পর, জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মোট মৃত্যু’র সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৬৪। গত চব্বিশ ঘণ্টায় মেদিনীপুর ছাড়াও খড়্গপুর, ডেবরা, পিংলা, বেলদা, দাঁতন, ক্ষীরপাই, ঘাটাল, গড়বেতা, শালবনী, কেশপুর প্রভৃতি এলাকাতেও সংক্রমিতের সন্ধান পাওয়া গেছে। তবে, পূর্বের তুলনায় অনেকটাই কম! গত চব্বিশ ঘণ্টায় শতাধিক ব্যক্তি সুস্থ হয়েছেন জেলায়। জেলা ও রাজ্যে সুস্থতার হার প্রায় ৮৬-৮৭ শতাংশ, যা রীতিমতো আশাব্যঞ্জক। এদিকে, গত ২৯ সেপ্টেম্বর, রাজ্যের জারি করা কোভিড প্রোটোকল (উপসর্গের মাত্রা অনুযায়ী সঠিক চিকিৎসা পদ্ধতি) মেনে, সমস্ত করোনা হাসপাতাল গুলিতে চিকিৎসা শুরু হয়েছে। তাই, জেলা ও রাজ্যে মৃত্যুর হারও তুলনামূলক ভাবে কমেছে বলে মনে করা হচ্ছে। আপাতত ভ্যাকসিন আসার আগে, এভাবেই সুনির্দিষ্ট প্রটোকল মেনে চিকিৎসা চললে, পরিস্থিতি ধীরে ধীরে নিয়ন্ত্রণে আসবে বলেও মনে করা হচ্ছে।

thebengalpost.in
খড়্গপুরে ফের সংক্রমিত ২২ :

.

গত চব্বিশ ঘণ্টায় খড়্গপুর শহর ও গ্রামীণ এলাকা মিলিয়ে ২২ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। এর মধ্যে, সালুয়া’র ৮ জন ইএফআর জওয়ান নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। আইআইটি ক্যাম্পাসের ২ জনের শরীরে নতুন করে পাওয়া গেছে করোনা ভাইরাসের জীবাণু। গোপালী এলাকায় একই পরিবারের ২ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। এছাড়াও, গোলবাজার, মথুরাকাটি, মালঞ্চ, নিমপুরাতেও ফের করোনা সংক্রমিতের সন্ধান পাওয়া গেছে। গ্রামীণের বেনাপুর (সানকারাচক) এলাকায় একই পরিবারের ২ জন, বসন্তপুরে ১ জন, কলাইকুন্ডা’তে ১ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। সবমিলিয়ে, খড়্গপুরে ২২ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। তবে, শুধুমাত্র আরটি-পিসিআরের রিপোর্ট অনুযায়ী। এদিকে, পিংলা ব্লকের গোবর্ধনপুর গ্রামের (পিংলা ৭ নং) একটি পরিবারের ৩ জন (বাবা ৪৩, মা ৪২ ও মেয়ে ১৫) একসাথে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। ডেবরা ব্লকের রাধামোহনপুর (বাঁশদা) এলাকাতেও একই পরিবারের ২ জনের (৫৫ বছরের ব্যক্তি ও ৪৪ বছরের মহিলা) রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। এছাড়াও, কাঞ্চনপুর (গোলগ্রাম), চক নরসিংহ, জামালচক (লোয়াদা ৯ নং), জোটনারায়ণ (লোয়াদা ৯ নং) প্রভৃতি এলাকা থেকেও করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। হরিপরপুরের ১ বছরের এক শিশুকন্যা’র করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে বলে জানা গেছে মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ সূত্রে।

thebengalpost.in
পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায় ফের করোনা সংক্রমিত ১৬৬ জন :

.

অপরদিকে, গড়বেতা ৩ নং এর দুর্লভগঞ্জে একই পরিবারের ৩ জন ও রসকুণ্ডু গ্রামে একটি পরিবারের ২ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। গড়বেতা ১ নং এর হুমগড়, খড়্কুশমা ও গড়বেতা সহ মোট ৫ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। চন্দ্রকোনা দু’নম্বরে ২ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। এদিকে, ঘাটাল মহকুমার ক্ষীরপাইতে ক্ষীরপাই পৌরসভার ২ জন (৩ ও ৪ নং ওয়ার্ড) এবং চন্দ্রকোনা ১ নং এর ১ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। ঘাটাল পৌরসভায় সংক্রমণ কিছুটা কমে, একজন মাত্র সংক্রমিত হয়েছেন। ঘাটালের গ্রামীণ এলাকাগুলিতে আরো ৮ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে আরটি-পিসিআর অনুযায়ী। দাঁতনের শ্যামসুন্দরপুর গ্রামে একই পরিবারের ৩ জন ছাড়াও, মেনকাপুর, দামোদরপুর ও মোহনপুর সহ আরো ৭ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। বেলদায় নতুন করে ৩ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে বলে জানা গেছে জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে। এদিকে, শালবনীর বড়কুলি গ্রামের ১৭ বছরের এক কিশোরী সহ শালবনীতে মোট ৩ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন শনিবার। কেশপুরের, মুগবাসান, নান্দারিয়া (রাউতা) ও ব্রাহ্মণডিহা সহ মোট ৩ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে।

.

জেলা থেকে রাজ্য, রাজ্য থেকে দেশ প্রতি মুহূর্তের খবরের আপডেট পেতে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক বুক পেজ এবং যুক্ত হোন Whatsapp Group টিতে