মেদিনীপুরের সভা থেকে করোনা চিকিৎসায় ‘সিটি ভ্যালু’র উপর গুরুত্ব দেওয়ার পরামর্শ মুখ্যমন্ত্রীর, কোভিড যোদ্ধাদের সঠিক বেতন দেওয়ার নির্দেশ

Chief minister advices to give importance in CT Values in Covid treatment

.

মণিরাজ ঘোষ, পশ্চিম মেদিনীপুর, ৬ অক্টোবর: দীর্ঘ এক বছর পর পশ্চিম মেদিনীপুর সফরে এলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুধু তাই নয়, করোনা পরিস্থিতি’র পর থেকে এটিই তাঁর প্রথম দক্ষিণবঙ্গ সফর। আজ, পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার খড়্গপুর গ্রামীণের বিদ্যাসাগর ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কের স্টেডিয়ামে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নির্ধারিত সময়ের প্রায় এক ঘন্টা আগেই পৌঁছে যান। ফলে, নির্ধারিত সময় ৪ টার অনেক আগেই (সাড়ে তিনটে নাগাদ) শুরু হয় প্রশাসনিক সভা। সমস্ত কাজ দ্রুততার সঙ্গে সম্পন্ন করার নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সঙ্গে ছিলেন মুখ্য সচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়, সদ্য প্রাক্তন মুখ্য সচিব (বর্তমানে, ওয়েস্টবেঙ্গল ইন্ডাস্ট্রিয়াল ডেভলপমেন্টের চেয়ারম্যান) রাজীব সিনহা, স্বরাষ্ট্র সচিব এইচ. কে দ্বিবেদী, অর্থ সচিব মনোজ পন্থ প্রমুখ। প্রশাসনিক সভার শুরুতেই, পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার কোভিড পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়। আলোচনার শুরুতেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee), ‘কোভিড পজিটিভ’ রেজাল্টের ক্ষেত্রে ‘সিটি ভ্যালু’ (CT Value)’র উপর গুরুত্ব দেওয়ার কথা বলেন। এই বিষয়ে, জেলাশাসক (DM) ডঃ রশ্মি কমল এবং মুখ স্বাস্থ্য আধিকারিক (CMOH) ডাঃ নিমাই চন্দ্র মন্ডল’কে বিষয়টি বুঝিয়ে দেন, প্রাক্তন মুখ্য সচিব রাজীব সিনহা।

thebengalpost.in
খড়্গপুরের সভায় রাজীব সিনহা :

.

প্রাক্তন মুখ্য সচিব ডঃ রাজীব সিনহা (Rajib Sinha) বলেন, “কোভিড পজিটিভ রেজাল্টের ক্ষেত্রে প্রথমেই লক্ষ্য করতে হবে, ওই নমুনায় সিটি ভ্যালু (CT Value- Cycle Threshold Values)’র পরিমাণ কত! আরটি-পিসিআর রেজাল্টে, প্রতিটি পজেটিভ রেজাল্টের পাশে ওই নমুনার সিটি ভ্যালু উল্লেখ থাকে। সিটি ভ্যালু ‘২০’ র কম হলে, ওই ব্যক্তির শরীরে ভাইরাল লোড অনেক বেশি। তাই, তিনি প্রবলভাবে সংক্রমিত। সেক্ষেত্রে, তাঁর থেকে সংক্রমণ ছড়ানোর সম্ভাবনাও বেশি। আর, ওই আক্রান্ত’কেও গুরুত্ব দিয়ে চিকিৎসা করতে হবে করোনা হাসপাতালে। তবে, সিটি ভ্যালু ‘২০’র র বেশি থাকলে, ওই ব্যক্তির থেকে সংক্রমণ ছড়ানোর সম্ভাবনা কম। কারণ, ২০ র বেশি সিটি ভ্যালু মানে, ওই ব্যক্তির শরীরে ভাইরাল লোড কম। সেক্ষেত্রে বাড়িতে রেখেও চিকিৎসা করা যেতে পারে।” প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত আগস্ট মাসের শেষ সপ্তাহ থেকেই, কলকাতা মেডিক্যাল কলেজের নির্দেশানুযায়ী এই সিটি ভ্যালুর উপর গুরুত্ব দিয়ে চিকিৎসা শুরু হয়েছে মূলত কলকাতায়। পশ্চিম মেদিনীপুরের মতো এলাকায় সেই পদ্ধতি এখনো অবলম্বন করা হয়নি বুঝতে পেরেই, মন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও ইন্ডাস্ট্রিয়াল বোর্ডের চেয়ারম্যান রাজীব সিনহা এই বিষয়টির উপর গুরুত্ব দেওয়ার নির্দেশ দেন জেলাশাসক ও মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক’কে। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “সিটি ভ্যালু কুড়ির বেশি থাকলে, তাঁকে হোম আইসোলেশনে বা সেফ হোমে (Safe Home) রেখেও চিকিৎসা করা যেতে পারে। তবে, ২০ র কম থাকলে একদিকে যেমন তাঁর চিকিৎসার উপর জোর দিতে হবে, তেমনই তাঁর থেকে যাতে সংক্রমণ না ছড়ায় সেটিও নজর রাখতে হবে।” ডঃ রাজীব সিনহা বলেন, “এই বিষয়টির উপর গুরুত্ব দিয়ে চিকিৎসা করলে মৃত্যুর হার কমবে।” মুখ্যমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে তিনি এও বলেন, “এখানে শালবনী করোনা হাসপাতালে একটু সমস্যা ছিল, বর্তমানে সেই সমস্যা মিটে গেছে, ভালোভাবে চিকিৎসা হচ্ছে।” অপরদিকে, রাজীব সিনহা পশ্চিম মেদিনীপুরের জেলাশাসক ডঃ রশ্মি কমল’কে নির্দেশ দেন, “হোম আইশোলেশনে (Home Isolation) থাকলেও নিয়মিত করোনা সংক্রমিতদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখতে হবে। প্রতিদিন তাঁদের ফোন করতে হবে। প্রথম চার-পাঁচদিন, কোভিডের ক্ষেত্রে কিছু বোঝা যায় না, ৭-৮ দিন পর থেকেই নানারকম উপসর্গ দেখা দেয়। সে ক্ষেত্রে, উপসর্গ দেখা দিলে, আক্রান্ত’কে সঙ্গে সঙ্গে করোনা হাসপাতালে ভর্তি করতে হবে।”

thebengalpost.in
জেলাশাসক ডঃ রশ্মি কমল :

.

এদিকে, পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার কর্মাধ্যক্ষ নির্মল ঘোষ মুখ্যমন্ত্রীর কাছে অভিযোগ জানান, বেসরকারি এজেন্সি গুলি কোভিড যোদ্ধাদের (চুক্তিভিত্তিক কর্মীদের) অত্যন্ত কম পারিশ্রমিকে দিচ্ছেন। এই বিষয়টি নিয়ে, মুখ্যমন্ত্রী অত্যন্ত ক্ষুব্ধ হন, তিনি জেলাশাসক ও মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক’কে কড়া নির্দেশ দেন, বেসরকারি এজেন্সিগুলো যদি ঠিকঠাক বেতন না দেয়, তবে তাদের বাদ দিয়ে নতুন এজেন্সি নিতে। একইসাথে, ঘাটাল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালেও দ্রুত স্থায়ী সুপার নিয়োগের বিষয়টিতেও জেলাশাসককে নজর দিতে বলেন। জেলাশাসক ডঃ রশ্মি কমল (Dr Rashmi Kamal) জানান, “এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করা হয়েছে।”

thebengalpost.in
মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ডাঃ নিমাই চন্দ্র মন্ডল :

.

জেলা থেকে রাজ্য, রাজ্য থেকে দেশ প্রতি মুহূর্তের খবরের আপডেট পেতে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক বুক পেজ এবং যুক্ত হোন Whatsapp Group টিতে