পরিবার থেকে গোষ্ঠী, একই চিত্র মেদিনীপুর, খড়্গপুর, ডেবরা, গড়বেতায়, জেলায় মোট সংক্রমিত ১৮৪ জন

THEBENGALPOST.IN
মেদিনীপুর, খড়্গপুর সহ জেলায় সংক্রমিত ১৫২ :
.

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, পশ্চিম মেদিনীপুর, ২৬ সেপ্টেম্বর: টেস্ট অনুপাতে সংক্রমণের হার কিছুটা কমেছে ঠিকই, তবে বিশেষ বিশেষ এলাকাগুলিতে মানুষ সংক্রমিত হচ্ছেন ধারাবাহিক ভাবেই। পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা’র প্রতিদিনের করোনা রিপোর্ট বিশ্লেষণ করলে, বিষয়টি পরিস্ফুট হচ্ছে বেল ভালোভাবেই। মেদিনীপুর শহর কিংবা রেলশহর খড়্গপুর বা ডেবরা থেকে গড়বেতা, দাসপুর থেকে বেলদা, দাঁতন সবজায়গাতেই চিত্রটা মোটামুটি একইরকম। আরটি-পিসিআর এবং র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন মিলিয়ে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায় প্রতিদিন গড়ে মোটামুটি ২০০০ বা তার আশেপাশ করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। এই মুহূর্তে, সংক্রমিত হচ্ছেন গড়ে ১৫০ থেকে ২০০ জন। গতকাল (শুক্রবার) রাতে, জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে যে রিপোর্ট পাওয়া গেছে, তাতে ১৮৪ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে সবমিলিয়ে। টেস্টে হয়েছে মোটামুটি ২০০০ এর কাছাকাছি। সেই হিসেবে, গড়ে প্রায় ১০ শতাংশ মানুষের রিপোর্ট পজিটিভ আসছে, যাদের শরীরে সামান্যতম হলেও উপসর্গ আছে বা সংক্রমিতের প্রত্যক্ষ সংস্পর্শে এসেছেন। এই হারটা আগের থেকে খুব সামান্য কমেছে। তবে, সুস্থতার হার বেড়েছে নিঃসন্দেহে। জেলায় এই মুহূর্তে সক্রিয় বা চিকিৎসাধীন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৫৬০ (মোট আক্রান্ত ৯১৫৪)। গত চব্বিশ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ১০ জনের! মোট মৃত্যু সংখ্যা ১৪০। জেলায় সুস্থতার হার প্রায় ৮১ শতাংশ।

THEBENGALPOST.IN
মেদিনীপুর, খড়্গপুর সহ জেলায় সংক্রমিত ১৮৪ :

.

র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন (৭৪), আরটি-পিসিআর (১০৩) এবং ট্রুনেট (৭) মিলিয়ে গত চব্বিশ ঘণ্টায় পশ্চিম মেদিনীপুরে মোট সংক্রমিত হয়েছেন ১৮৪ জন। এর মধ্যে, জেলার বিভিন্ন ক্যাম্পে হওয়া র‌্যাপিডের তালিকা এদিন পাওয়া না গেলেও, আরটি-পিসিআর অনুযায়ী, মেদিনীপুর শহরে নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ১৪ জন‌ কিংবা তার থেকে বেশি (র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন এবং ট্রুনেট যুক্ত হলে কয়েকজন বাড়ার সম্ভাবনা)। তবে, এই কয়েকজন সংক্রমিতের মধ্যে, রাঙামাটিতে একই পরিবারের ২ জন (৫৮ বছরের ব্যক্তি ও ২৬ বছরের যুবক) ছাড়াও আরো ২ জন সংক্রমিত হয়েছেন। পুলিশ লাইনেও একই পরিবারের ২ জন (৫৫ বছরের মহিলা ও ১১ বছরের কিশোর) করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। এছাড়াও, মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজে ১ জন, নজরগঞ্জে ১ জন সহ কোতোয়ালী থানা এলাকায় আরো দুটি পরিবারে ২ জন করে মোট ৭ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। মেদিনীপুর সদরের গুড়গুড়িপাল এলাকায় এক মহিলার (৪২) রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে এদিন। এদিকে, রেল সূত্রে ১৫ জন‌ সহ খড়্গপুরে করোনা সংক্রমিত হয়েছেন, ২৪ জন। রেল হাসপাতালের এক কর্মী, লোকো পাইলট এবং বিভিন্ন রেলকর্মী সহ মোট ১৫ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে শুক্রবার রাতে। এছাড়াও, ইমারজেন্সি ফোর্স লাইন (ই এফ লাইন) এর এক পুলিশ কর্মী সহ হিজলি, পুরাতন বাজার, ভগবানপুর, সুভাষপল্লী এবং তালবাগিচা এলাকায় মোট ৯ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। প্রত্যেকটি এলাকাই সংক্রমণ মানচিত্রে অত্যন্ত ‘কমন’ বা সুপরিচিত। কাজেই, মেদিনীপুর (রাঙামাটি সহ বেশ কয়েকটি এলাকা) ও খড়্গপুরের এই সমস্ত বিশেষ এলাকাগুলিতে পরিবার সংক্রমণ বা গোষ্ঠী সংক্রমণের আশঙ্কা একেবারে উড়িয়ে দেওয়া যায় না। যদিও, উপসর্গহীন আক্রান্তের সংখ্যাই বেশি।

THEBENGALPOST.IN
ডেবরা, গড়বেতা সহ জেলায় করোনা সংক্রমিত ১৮৪ জন :

.

গড়বেতা এলাকাতেও একই চিত্র পরিস্ফুট। গড়বেতা, ফতেসিংপুর (আমলাগোড়া), লোধাকামার বিপিএল আঁকায় পারিবারিক সংক্রমণ দেখা দিয়েছে। গড়বেতায় একই পরিবারের ৩ জন, ফতেসিংপুরে একই পরিবারের ২ জন, লোধাকামার এলাকায় একই পরিবারের ৪ জন সহ মোট ৫ জন এবং শ্রীধরপুর, তালডাংরা, দেউলী ১ জন করে মোট ৩ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। মোট ১৩ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে গড়বেতায়। ডেবরা’র চককুমারে একই পরিবারের ৩ জন, হরিহরপুরে একই পরিবারের ২ জন সহ হলদি, লোয়াদা, ডেবরা, রাধামোহনপুর, কালুয়া সহ মোট ১০ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। সবং এর মালপাড় এলাকায় ১ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। চন্দ্রকোনা ২ নং এ ২ জন, চন্দ্রকোনা রোডের নয়াবসত, রোড, বিষ্ণুপুর সহ ৪ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। বেলদায় মোহাম্মদপুরে একই পরিবারের ৪ জন সহ মোট ৬ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। দাঁতনের মনোহরপুর, শালীকোঠাতে ২ জন করে মোট ৪ জন এবং দাঁতন ও তারাকুইতে ২ জন সহ মোট ৬ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন শুক্রবার। ঘাটাল মহকুমার নতুন করে প্রায় ২০ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। এরমধ্যে, ক্ষীরপাই এলাকায় (শ্রীনগর, কাশিগঞ্জ, ভবানীপুর, ক্ষীরপাই প্রভৃতি) ৭ জন, দাসপুর এলাকায় ৮ জন‌ এবং ঘাটাল এলাকায় ৫ জন সহ মোট ২০ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে বলে জানা গেছে জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে।

.

জেলা থেকে রাজ্য, রাজ্য থেকে দেশ প্রতি মুহূর্তের খবরের আপডেট পেতে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক বুক পেজ এবং যুক্ত হোন Whatsapp Group টিতে