সাদা গাড়িতে করে বিধানসভায় গিয়ে ‘বিধায়ক’ পদ থেকে ইস্তফা দিলেন শুভেন্দু অধিকারী, ‘গৃহীত হচ্ছেনা’ বললেন বিধানসভার অধ্যক্ষ

thebengalpost.in
শুভেন্দু অধিকারী :
বিজ্ঞাপন

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, কলকাতা, ১৬ ডিসেম্বর: সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) ই ইস্তফা দিচ্ছেন বলে জল্পনা ছড়িয়ে পড়লেও, শেষ মুহূর্তে সিদ্ধান্ত বদলান শুভেন্দু অধিকারী। তবে, গতকাল হলদিয়ায় অনুষ্ঠিত সভা থেকে তিনি নিজের অবস্থান স্পষ্ট করে দেওয়ার পরই, বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়, আজ অর্থাৎ ১৬ ডিসেম্বর ‘বিধায়ক’ পদ থেকে ইস্তফা দেবেন শুভেন্দু অধিকারী। আগামীকাল, বৃহস্পতিবার তিনি যাবেন দিল্লি। হয়তো সেখানেই প্রধানমন্ত্রী’র হাত থেকে বিজেপি’র পতাকা হাতে তুলে নেবেন জননেতা শুভেন্দু অধিকারী। আর নাহলে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি’র সঙ্গে সাক্ষাৎ করে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ’র সাথে সরাসরি মেদিনীপুরের জনসভায় যোগ দিয়ে, সেখনেই পদ্ম-পতাকা হাতে তুলে নেবেন! আপাতত, সবকিছুই বিশ্বস্ত সূত্রের খবর অনুযায়ী এগোচ্ছে। আজ (১৬ ডিসেম্বর), বিকেল পৌনে ৪ টে নাগাদ তিনি বিধানসভায় পৌঁছন। তাঁর সঙ্গে ছিলেন পুরুলিয়ার কংগ্রেস বিধায়ক সুদীপ মুখোপাধ্যায়। নিয়ম অনুযায়ী, নিজের হাতে লিখে পদত্যাগপত্র দাখিল করেছেন তিনি। তবে, এদিন অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় বিধানসভায় না থাকায়, তাঁর সচিব অভিজিৎ সোমের কাছে ইস্তফাপত্র দিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। অধ্যক্ষ’কে তিনি ইস্তফাপত্রের কপি ই-মেইল করে দিয়েছেন। আর, এভাবে ইস্তফা দেওয়াকে ‘অবৈধ’ বলেছেন, বিধানসভার অধ্যক্ষ (স্পিকার) বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি সংবাদমাধ্যমকে এও জানিয়েছেন, “এখনই গৃহীত হচ্ছেনা ইস্তফা। পরবর্তী সময়ে পদক্ষেপ করা হবে।”

thebengalpost.in
শুভেন্দু’র ইস্তফাপত্র :

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সূত্রের খবর অনুযায়ী, বেলা ১২ টা নাগাদ নিজের ‘ব্ল্যাক স্করপিও’ করে কোলাঘাটের উদ্দেশ্যে রওনা দেন মেদিনীপুরের ভূমিপুত্র শুভেন্দু অধিকারী। সেখানে গেস্ট হাউসে গোপন বৈঠকও হয়। তারপর, অত্যন্ত সন্তর্পনে, নীল-সাদা তোয়ালে ঢাকা সাদা স্করপিও করে কলকাতার উদ্দেশ্যে রওনা দেন তিনি। সাংবাদিকদের হাত থেকে রেহাই পেতেই, তিনি এই পন্থা অবলম্বন করেন বলে ঘনিষ্ঠরা জানিয়েছেন। এরপর, বিধানসভায় পৌঁছে গাড়ি থেকে নেমে সোজা বিধানসভার সচিবের ঘরে চলে যান তিনি। সঙ্গে ছিলেন কংগ্রেস বিধায়ক সুদীপ মুখোপাধ্যায়। নিজের হাতে লেখা (নিয়মানুযায়ী) ইস্তফাপত্রে শুভেন্দু অধিকারী অনুরোধ করেছেন, দ্রুত তাঁর পদত্যাগ যাতে গ্রহণ করা হয়। বিধানসভায় এদিন অধ্যক্ষ না থাকায়, তাঁকে ই-মেল করে নিজের ইস্তফাপত্র পাঠিয়েছেন শুভেন্দু। তবে, বিধানসভার অধ্যক্ষ এ ব্যাপারে জানিয়েছেন, আপাতত শুভেন্দুর ইস্তফাপত্র গৃহীত হচ্ছে না! যেভাবে বিধানসভার সচিবের কাছে শুভেন্দু অধিকারী ইস্তফাপত্র দাখিল করেছেন তা ‘বৈধ নয়’। এভাবে সচিবের কাছে ইস্তফাপত্র দেওয়া যায় না এবং ইস্তফাপত্র গ্রহণের ক্ষেত্রে সচিবেরও কোনও এক্তিয়ার নেই। শুভেন্দু অধিকারীর ইস্তফাপত্র গ্রহণ করা হবে কিনা সে ব্যাপারে পরবর্তীকালে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন বিধানসভার অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়।

thebengalpost.in
বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দিলেন শুভেন্দু অধিকারী :

বিজ্ঞাপন

উল্লেখ্য যে, গত ২৭ নভেম্বর মন্ত্রিত্ব ছেড়েছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। ছেড়েছিলেন, একাধিক সরকারি বা মনোনীত পদগুলিও। আর এবার ছাড়লেন বিধায়ক পদ। তবে, এখনও দলীয় সদস্যপদ প্রত্যাহার করেননি তিনি! সূত্রের খবর অনুযায়ী, শুক্রবার বা শনিবার দলীয় সদস্যপদ ছাড়তে চলেছেন তিনি। তারপরই বিজেপির হাত ধরে, নতুন পথযাত্রার সূচনা করতে চলেছেন তিনি। ঐতিহাসিক মেদিনীপুরের মাটিকেই সেই পথযাত্রার ভিত্তিভূমি করে নিতে চলেছেন, অবিভক্ত মেদিনীপুরের ভূমিপুত্র শুভেন্দু অধিকারী!

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

জেলা থেকে রাজ্য, রাজ্য থেকে দেশ প্রতি মুহূর্তের খবরের আপডেট পেতে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক বুক পেজ এবং যুক্ত হোন Whatsapp Group টিতে