ক্রুদ্ধ রাহুল, ফর্মে অনুপম! পূর্বসূরীর ঢংয়েই বেফাঁস মন্তব্য, “করোনা হলে মমতাকে জড়িয়ে ধরব”

মমতা'র বিরুদ্ধে বেফাঁস মন্তব্যের ধারা অব্যাহত (অনুপম-মমতা-রাহুল, ছবি- প্রতীকী) :
.

দ্য বেঙ্গল পোস্ট বিশেষ প্রতিবেদন, সমীরণ ঘোষ, ২৮ সেপ্টেম্বর : গত শনিবারই (২৬ সেপ্টেম্বর) দলের সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি রূপে মুকুল রায় (Mukul Roy) এবং সর্বভারতীয় অন্যতম সম্পাদক রূপে অনুপম হাজরা (Anupam Hazra)’র নাম ঘোষণা করেন, বিজেপি’র সর্বভারতীয় সভাপতি জগৎ প্রকাশ নাড্ডা (J. P. Nadda)। অপরদিকে, সর্বভারতীয় সম্পাদক (বা, কেন্দ্রীয় সম্পাদক) পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়, রাহুল সিনহা (Rahul Sinha)’কে।‌ ক্ষোভে ফেটে পড়েন বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা! সংবাদমাধ্যমে’র সামনেই নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, “৪০ বছর ধরে নিঃস্বার্থভাবে দলের সেবা করার ভালো উপহার পেলাম! তৃণমূল নেতার জন্য পদ থেকে সরে যেতে হল। ১০-১৫ দিনের মধ্যেই নিজের আগামী কর্মপন্থা নির্ধারণ করব।” এদিকে, পদ পাওয়ার পরই, স্ব-মহিমায় আবির্ভূত বোলপুরের ‘বিতর্কিত’ চরিত্র তথা প্রাক্তন তৃণমূল সাংসদ অনুপম হাজরা। দলীয় কর্মসূচিতে গিয়ে ‘বেনজির’ আক্রমণ করে বসলেন, একদা তাঁর প্রিয় নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়’কে! যা নিয়ে এখন বিতর্ক আর সমালোচনা’র কেন্দ্রবিন্দুতে অনুপম।

THEBENGALPOST.IN
অনুপম হাজরা (মাঝখানে, ফাইল ‌ছবি) :

.

ভারতীয় জনতা পার্টি’র সর্বভারতীয় পদে বড় দায়িত্ব পাওয়ার ঠিক পরের দিনই, অর্থাৎ গতকাল (রবিবার) বারুইপুরের এক কর্মিসভায়, সাংবাদিকদের একটি প্রশ্নের উত্তরে অনুপম বলেন, তাঁর করোনা ধরা পড়লে তিনি সবার আগে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে জড়িয়ে ধরবেন! এই বেফাঁস মন্তব্যের সুরে, রাজনৈতিক মহলের একাংশ রাহুল সিনহা’র প্রচ্ছন্ন ছায়া খুঁজে পাচ্ছেন! প্রাক্তন কেন্দ্রীয় সম্পাদক রাহুল সিনহা’ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়’কে চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ করতে গিয়ে, অনেক সময়ই শালীনতার সীমা অতিক্রম করে যেতেন। সম্প্রতি, ২১ শে জুলাই মমতা’র ভার্চুয়াল সভার বিরোধিতা করতে গিয়ে, সংবাদমাধ্যমের সামনে অশালীন মন্তব্য করে বসেন রাহুল সিনহা, এমনটাই রাজনৈতিক মহলের একাংশের দাবি। আর এবার, তাঁর জুতোয় (দলীয় কমিটিতে) ‘পা’ (পদ-লাভ) গলানোর সাথে সাথেই একইভাবে বেফাঁস মন্তব্য করে বসলেন, প্রাক্তন সাংসদ তথা অধ্যাপক অনুপম হাজরা। বারুইপুরে উপস্থিত সাংবাদিকরা তাঁকে প্রশ্ন করেন, তাঁর সভায় উপস্থিত সমর্থকরা মাস্ক পরেননি কেন?‌ এই প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়েই ‘বেফাঁস’ মন্তব্য করে বসেন অনুপম! তিনি বলেন, “আমাদের কর্মীরা করোনার থেকেও বড় শত্রুর সঙ্গে লড়াই করছেন। তাঁরা লড়াই করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে। তাই করোনা’কে তাঁরা ভয় পান না! আর, আমার যদি করোনা হয় তবে আমি মমতা বন্দোপাধ্যায়কে জড়িয়ে ধরব।” কথাটি হয়তোবা রসিকতার সুরেই বলেছেন, একদা তাঁর দলীয় নেত্রী বা দিদি’কে উদ্দেশ্য করে! তবে, করোনা’র মতো মারণ ভাইরাস বা ‘মহামারী’কে নিয়ে এরকম রসিকতা’কে মোটেই ভালো চোখে দেখছেন না সংশ্লিষ্ট অনেকেই। তাঁরা অনুপমের সমালোচনা শুরু করে দিয়েছেন।

thebengalpost.in
পদ হারিয়ে রাহু সিনহা’র টুইট :

.

এদিকে, নিজের বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে, এরপরই অনুপম করোনা মহামারীর মোকাবিলায় মমতা সরকারের ব্যর্থতা বা ‘অমানবিকতা’র তথ্য তুলে ধরেন। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তথা তৃণমূল সরকারের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ তুলে অনুপম হাজরা (Anupam Hazra) বলেন, “অমানবিকভাবে করোনা রোগীদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছেন তিনি (ম‌মতা বন্দ্যোপাধ্যায়)‌। করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত’দের দেহ কেরোসিন দিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে! আমরা মৃত বিড়াল বা কুকুরের সঙ্গেও এমনটা করি না।”
মমতা'র বিরুদ্ধে বেফাঁস মন্তব্যের ধারা অব্যাহত (অনুপম-মমতা-রাহুল, ছবি- প্রতীকী) :

.

জেলা থেকে রাজ্য, রাজ্য থেকে দেশ প্রতি মুহূর্তের খবরের আপডেট পেতে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক বুক পেজ এবং যুক্ত হোন Whatsapp Group টিতে