করোনাসুর আর মহিষাসুরের সাথে যোগ দিতে বৃষ্টি-অসুর আসছে মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম সহ দক্ষিণবঙ্গের পুজো প্যান্ডেলে প্যান্ডেলে

.

দ্য বেঙ্গল পোস্ট বিশেষ প্রতিবেদন, সায়নী দাশগুপ্ত, ১৭ অক্টোবর: সমস্ত ধরনের ভয়-ভীতি, আতঙ্ক-সতর্কতা উপেক্ষা করেই পুজোর কেনাকাটা শুরু করেছে বাঙালি। ভিড় বাড়তে শুরু করেছে দোকানগুলিতে। মুষড়ে পড়া ক্ষুদ্র ও মাঝারি অর্থনীতির সাপেক্ষে এই উৎসাহ নিঃসন্দেহে আশাপ্রদ। তবে, সংক্রমণের এই বাড়বাড়ন্ত সময়ে, সতর্কতাও যে বিশেষভাবে প্রয়োজন তা বলাই বাহুল্য! আর এ সবের মধ্যেই, আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস একদিকে যেমন রাজ্যের স্বাস্থ্য যোদ্ধা তথা করোনা যোদ্ধাদের মনে আশার সঞ্চার করবে, ঠিক তেমনই হুজুগে বাঙালি’কে কিছুটা নিরাশ করবে! অন্তত, যাঁরা এবারও ভেবেছিলেন, পুজোর চার দিনে ৪ টে নতুন ড্রেস পরে, প্যান্ডেল থেকে প্যান্ডেলে চষে বেড়াবেন, তাঁদের ক্ষেত্রে তো নিঃসন্দেহে মন খারাপ করা খবর। করোনাসুর আর মহিষাসুরের সঙ্গেই যোগ দিতে আসছেন বৃষ্টি-অসুর। তাও আবার, ষষ্ঠী থেকে অষ্টমী!

thebengalpost.in
ফের নতুন ঘূর্ণিঝড় বা নিম্নচাপের আশঙ্কা :

.

অক্টোবরের দ্বিতীয় সপ্তাহে, বাংলা থেকে বিদায় নেওয়ার কথা ছিল বর্ষার, কিন্তু একাধিক নিম্নচাপ বর্ষারাণী’র বিদায়ের পথে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। অন্যদিকে,
আবহাওয়া সূত্র অনুযায়ী, আগামী সোমবার অর্থাৎ (১৯ অক্টোবর) নতুন একটি নিম্নচাপ দানা বাঁধতে চলেছে মধ্য বঙ্গোপসাগরের বুকে, যা ক্রমশ শক্তি সঞ্চয় করে আগামী বুধ বা বৃহস্পতি বার অন্ধ্র-ওড়িশা উপকূলে ধীরে ধীরে প্রবেশ করবে গভীর নিম্নচাপ হিসেবে। এই নিম্নচাপের প্রভাব বাংলায় সরাসরি না পড়লেও, আগামী ষষ্ঠী থেকে অষ্টমী পর্যন্ত দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে বিক্ষিপ্ত থেকে ভারী বৃষ্টির সম্ভবনা রয়েছে। আলিপুর আবহাওয়া আধিকারিদের ধারণা, পুজোর দিনগুলি এই নিম্নচাপের হাত ধরে কলকাতা, দুই ২৪ পরগনা, হুগলী, হাওড়া, দুই মেদিনীপুর ও ঝাড়গ্রাম জেলায় সকাল থেকে দফায় দফায় মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টি হতে পারে। অন্যদিকে, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া ,বীরভূম, মুর্শিদাবাদ, দুই বর্ধমান ও নদীয়া জেলায় হালকা বৃষ্টিপাত হতে পারে। তবে, আপাতত উওরবঙ্গে কোনো ভারী বৃষ্টির সম্ভবনা নেই।

.
.

জেলা থেকে রাজ্য, রাজ্য থেকে দেশ প্রতি মুহূর্তের খবরের আপডেট পেতে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক বুক পেজ এবং যুক্ত হোন Whatsapp Group টিতে