“নতুন করে এখন শিক্ষক নিয়োগ সম্ভব নয়”, শিক্ষামন্ত্রীর অডিও ভাইরাল হল অনুপম হাজরার সৌজন্যে

.

দ্য বেঙ্গল পোস্ট বিশেষ প্রতিবেদন, অমৃতা ঘোষ, ৩ নভেম্বর : একজন প্রাথমিক টেট (Primary Tet) পাস এবং ডিএলএড (D.el.ed) ট্রেনিং প্রাপ্ত চাকরিপ্রার্থী শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে সরাসরি ফোন করে জানতে চেয়েছিলেন, তাঁদের নিয়োগ কবে হবে! জবাবে, শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee) পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন, “এখন নতুন নিয়োগ সম্ভব নয়! প্রায় এক বছর ধরে ক্লাস হয়নি, শিক্ষকদের মাইনে দিতে হচ্ছে। এই মুহূর্তে নতুন করে কিছু সম্ভব নয়!” একজন চাকরিপ্রার্থীর সঙ্গে হওয়া শিক্ষামন্ত্রীর এই কথোপকথনের অডিওটি নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে রবিবার (১ নভেম্বর) পোস্ট করেন বিজেপির কেন্দ্রীয় সম্পাদক অনুপম হাজরা (Anupam Hazra)। সঙ্গে সঙ্গেই অডিওটি ভাইরাল হয়ে যায়। তবে, এই অডিওটির সত্যতা যাচাই করেনি দ্য বেঙ্গল পোস্ট। এই অডিওতে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বিস্ফোরক মন্তব্য নিয়ে ইতিমধ্যে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে লেখালেখি হলেও, এখনো কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি, শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বা শিক্ষা দপ্তর সূত্রে।

thebengalpost.in
চাকরিপ্রার্থীর সঙ্গে শিক্ষামন্ত্রীর কথোপকথনের অডিও পোস্ট করলেন অনুপম হাজরা :

.
.

অডিও’তে একজন টেট পাস এবং প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত শিক্ষার্থী বলেন, “স্যার আমরা একটি সংবাদমাধ্যমে আপনার সাক্ষাৎকার থেকে জেনেছিলাম, টেট পাস প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের সরাসরি নিয়োগ করা হবে। আমরা অনেক আশায় আছি স্যার! আমাদের কথা একটু ভাবুন।” জবাবে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় তাঁর স্বভাবসিদ্ধ চাঁচাছোলা ভাষায় জানিয়ে দেয়, “তুমি প্রশিক্ষণ নাও আর যাই কর, এই মুহূর্তে কোনো নিয়োগ করা সম্ভব!” ভাইরাল হওয়া অডিওতে শিক্ষামন্ত্রীর কণ্ঠে এও শোনা যায়, “১ লক্ষ ২০ হাজার টেট পাসকে সরকার চাকরি দেবে কি করে!” তবে তিনি বলেন, যারা ফর্ম ফিলাপ করে বসে আছে, তাদের সবার পরীক্ষা নেওয়া হবে। সবশেষে ‌শিক্ষামন্ত্রী’কে নিয়োগের বিষয়ে জোরাজুরি করলে শিক্ষিমন্ত্রী বলেন, “আপনাকে কি আমি টেট পাস করতে বা প্রশিক্ষণ নিতে জোর করেছিলাম! পাস যখন করেছেন নিজের যোগ্যতার উপর ভরসা করে বসে থাকুন, যখন জায়গা (Vacancy অর্থে) হবে, তখন ঠিক নেওয়া হবে।” শিক্ষামন্ত্রী এও জানিয়ে দেন, বহু স্কুল আছে যেখানে শিক্ষক আছে, কিন্তু ছাত্র নেই! তাই, সরকার এখনই শিক্ষক নিয়োগ করার কথা ভাবছেনা। এই ভাইরাল হওয়া অডিওটি (সত্যতা যাচাই করেনি দ্য বেঙ্গল পোস্ট) ইতিমধ্যে সমাজমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে গেলেও, প্রশ্ন উঠছে, শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে একান্ত ব্যক্তিগত কথোপকথন এইভাবে ভাইরাল করা উচিৎ হয়েছে কিনা!

.
.

জেলা থেকে রাজ্য, রাজ্য থেকে দেশ প্রতি মুহূর্তের খবরের আপডেট পেতে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক বুক পেজ এবং যুক্ত হোন Whatsapp Group টিতে