দু’দুটি ভ্যাকসিন ছাড়পত্র পেল দেশে! লন্ডনের কোভিশিল্ডের পর ভারতের কোভাক্সিন

বিজ্ঞাপন

দ্য বেঙ্গল পোস্ট বিশেষ প্রতিবেদন, মণিরাজ ঘোষ, ৩ জানুয়ারি: অতিমারীর ভয়াবহতা কাটিয়ে অবশেষে সুদিন আসছে! ভারতবর্ষে করোনা ভ্যাকসিনের ড্রাই রান সফলভাবে সম্পন্ন হওয়ার মধ্যেই, দেশে দু’দুটি ভ্যাকসিনকে জরুরি ভিত্তিতে অনুমোদন দিয়েছেন, ডিসিজিআই (Drugs Controller General of India) ভি জি সোমানি (Dr. Venugopal G Somani)। সেন্ট্রাল ড্রাগস স্ট্যান্ডার্ড কন্ট্রোল অর্গানাইজেশন (CDSCO) এর বিশেষজ্ঞ কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী, সেরাম ইনস্টিটিউটের ‘কোভিশিল্ড’ (Covishield) এবং ভারত বায়োটেকের ‘কোভ্যাক্সিন’ (Covaxin) কে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন। কিছুদিনের মধ্যেই আসতে চলেছে, ক্যাডিলা হেলথকেয়ারের ভ্যাকসিনটিও। জাইডাস-ক্যাডিলার ভ্যাকসিনটিকে তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়ালের জন্য ছাড়পত্র দিয়েছেন ডিসিজিআই সোমানি।

thebengalpost.in
কোভিশিল্ড (Covishield) এবং আদর পুনাওয়ালা :

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
thebengalpost.in
কোভিশিল্ড :

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ব্রিটিশ-সুইডিশ ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থা অ্যাস্ট্রোজেনেকার এর সঙ্গে যৌথভাবে ‘কোভিশিল্ড’ ভ্যাকসিন তৈরি করেছে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়। ভারতে এই ভ্যাকসিন উৎপাদন ও বন্টনের দায়িত্বে সেরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়া (Serum Institute of India)। সিআইআই প্রধান আদর পুনাওয়ালা জানিয়েছেন, কেন্দ্রীয় সরকারকে তাঁরা এই ভ্যাকসিনের প্রতিটি ডোজ ২০০ টাকায় তুলে দিলেও, বাজার থেকে এই ভ্যাকসিনের দুটি ডোজ কিনতে হবে ২০০০ টাকায়। অপরদিকে, কেন্দ্র সরকার ইতিমধ্যে ৩০ কোটি দেশবাসীর হাতে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে এই ভ্যাকসিন তুলে দেওয়ার ঘোষণা করেছে। যেহেতু, ৭০ শতাংশ কার্যকরী এই ভ্যাকসিনের দুটি ডোজ নিতে হবে সাধারণ মানুষকে, তাই, ২৭ কোটি দেশবাসীর জন্য ৪০০ টাকা করে খরচ হবে কেন্দ্রীয় সরকারের। গতকাল, ড্রাই রান চলাকালীন নয়াদিল্লির গুরু তেগ বাহাদুর হাসপাতালে গিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন অবশ্য বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়ার ঘোষণা করেছেন। তবে, প্রথম পর্যায়ে এই ভ্যাকসিন পাবেন ৩০ কোটি মানুষ। যে তালিকায় স্বাস্থ্যকর্মী সহ প্রথম শ্রেণীর করোনা যোদ্ধা (পুলিশ, আর্মি প্রভৃতি), বয়স্ক (৫০ উর্ধ্ব) ও অসুস্থ (সুগার, প্রেসার, কিডনি ও কো-মর্বিডিটি থাকা) ব্যক্তিরা আছেন। সূত্রের খবর অনুযায়ী, আগামী সপ্তাহ থেকেই ১ কোটি স্বাস্থ্যকর্মী’কে এই ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ শুরু হবে। যার মহড়া বা ড্রাই রান ইতিমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে সারা দেশজুড়ে।

thebengalpost.in
কোভ্যাক্সিন :

বিজ্ঞাপন

অন্যদিকে, আরও একটি গর্বের বিষয় হল, ভারতবর্ষের হায়দরাবাদের সংস্থা ভারত-বায়োটেক এবং সরকারি সংস্থা ICMR ও সরকারি প্রতিষ্ঠান NIV (National Institute of Virology, Pune) এর যৌথ উদ্যোগে প্রস্তুত ‘কোভ্যাক্সিন’ও আজ (৩ জানুয়ারি) ছাড়পত্র পেয়েছে ডিসিজিআই কর্তৃক। স্বভাবতই উচ্ছ্বসিত দেশবাসী! বিশেষজ্ঞরা আশাবাদী, কোভিশিল্ড ও কোভ্যাক্সিন দুটিই কোভিডের নতুন স্ট্রেন রুখে দিতে সক্ষম হবে। ন্যাশনাল আর্বান হেলথ মিশনের নোডাল অফিসার তথা পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার ডেপুটি সি এম ও এইচ ডাঃ সৌম্যশঙ্কর সারেঙ্গী জানিয়েছেন, “মার্চ মাস থেকে প্রায় ১০ মাসের যুদ্ধে করোনা’কে হারিয়ে অবশেষে জয়ী হতে চলেছে বিজ্ঞান। আমাদের বার্তা ছিল, করোনা হারবে, মানুষ জিতবে! ২০২১ এই তা সম্ভব হবে বলে আমরা আশাবাদী।”

বিজ্ঞাপন

জেলা থেকে রাজ্য, রাজ্য থেকে দেশ প্রতি মুহূর্তের খবরের আপডেট পেতে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক বুক পেজ এবং যুক্ত হোন Whatsapp Group টিতে