খড়্গপুর IIT র তৈরি পশ্চিম মেদিনীপুরের ৭৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের নাম শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জির নামে, তীব্র প্রতিবাদ বাম-কংগ্রেস-তৃণমূলের

thebengalpost.in
আইআইটি ক্যাম্পাসের মধ্যে থাকা হাসপাতাল :

বিজ্ঞাপন

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, পশ্চিম মেদিনীপুর, ২০ ফেব্রুয়ারি: উদ্বোধনের আগেই পাল্টে দেওয়া হল খড়গপুরে আইআইটির তৈরি হাসপাতালের নাম! নবনির্মিত এই হাসপাতালের নাম হওয়ার কথা ছিল, “বিসি রায় ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্স এন্ড রিসার্চ হসপিটাল”; কিন্তু, সেই নাম বদলে ফেলে নতুন নাম হচ্ছে “শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জি মেডিক্যাল সায়েন্স এন্ড রিসার্চ।” সূত্রের খবর অনুযায়ী, আইআইটি কর্তৃপক্ষ বোর্ড মিটিং করেই এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। জনসমক্ষে এখনও মুখ খোলা না হলেও, আইআইটি’র পোর্টালে এই নামই তোলা হয়েছে। আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারি, খড়্গপুর আইআইটি (IIT Kharagpur)’র সমাবর্তন অনুষ্ঠানে, ভার্চুয়ালি এই হাসপাতালের উদ্বোধন করবেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। পশ্চিম মেদিনীপুরের বলরামপুরে (খড়্গপুর গ্রামীণ এলাকায়) এই হাসপাতাল তৈরি করেছে খড়গপুর আইআইটি কর্তৃপক্ষ। মোট ৭৫০ শয্যাবিশিষ্ট এই হাসপাতাল তৈরিতে খরচ হয়েছে ২৫০ কোটি টাকা। তবে, আইআইটি ক্যাম্পাসের মধ্যে থাকা হাসপাতালের নাম থাকছে যথারীতি, ‘বিধান চন্দ্র রায় টেকনোলজি হাসপাতাল’ (B.C. Roy Technology Hospital)।

thebengalpost.in
আইআইটি ক্যাম্পাসের মধ্যে থাকা হাসপাতাল :

বিজ্ঞাপন

[ আরও পড়ুন -   অতিমারী অতিক্রম করে খুলেছে স্কুলের দরজা, রাস্তা দিতে নারাজ খড়্গপুর IIT, তুমুল বিক্ষোভ ছাত্র-ছাত্রী, অভিভাবক-অভিভাবিকাদের ]

প্রসঙ্গত, ইউপিএ (UPA) আমলে প্রস্তাবিত খড়্গপুর আইআইটি’র বিখ্যাত এই হাসপাতালের নাম দেওয়া হয়েছিল বিধানচন্দ্র রায় ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্স অ্যান্ড রিসার্চ। কিন্তু, বর্তমান আমলে তা উদ্বোধন হওয়াতেই এই নাম বদল বলে মনে করছেন ওয়াকিবহাল মহল! এদিকে, বিশ্ববিশ্রুত চিকিৎসক তথা “বাংলার রূপকার” বিধানচন্দ্র রায়ের পরিবর্তে, বিজেপির জনসঙ্ঘের প্রতিষ্ঠাতা শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের নামে নামাঙ্কিত হাসপাতালের প্রসঙ্গে শুরু হয়েছে তৃণমূল-বিজেপি রাজনৈতিক তরজা! শুধু কংগ্রেস নয়, এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে বাম-তৃণমূলও। তৃণমূলের জেলা মুখপাত্র দেবাশিস চৌধুরী জানিয়েছেন, “চিকিৎসা বিজ্ঞান বা শিক্ষার সঙ্গে শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের কোনো নামগন্ধ পর্যন্ত নেই! সেখানে, রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ডাক্তার বিধান চন্দ্র রায়ের নাম কী করে বাতিল করল, তা নিয়েই আমাদের প্রশ্ন মোদির সরকারকে!” বাম নেতা তথা শিক্ষক অমিতাভ দাস জানিয়েছেন, “নাম পরিবর্তনের তীব্র ধিক্কার জানাচ্ছি। আইআইটি ডিরেক্টরকে এর জবাব দিতে হবে। অবিলম্বে তাঁর অপসারণের দাবিও জানাচ্ছি।” যদিও, প্রসঙ্গটি এড়িয়ে গিয়েছেন IIT KHARAGPUR এর ডাইরেক্টর, রেজিস্ট্রার প্রমুখ।

thebengalpost.in
আগামী ২৩ শে ফেব্রুয়ারি আইআইটি’র সমাবর্তন :

[ আরও পড়ুন -   পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা পুলিশের 'উৎসর্গ' হাসি ফোটাল 'অনেকের' মুখে, পুলিশ সুপার দিলেন সচেতনতার বার্তা ]