মঞ্চেই ‘কান ধরে উঠবস’ করলেন জন্মলগ্ন থেকে তৃণমূল করা পশ্চিম মেদিনীপুরের নেতা, বেনজির ঘটনার সাক্ষী থাকলেন শুভেন্দু

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, পশ্চিম মেদিনীপুর, ৪ মার্চ: কংগ্রেসী পরিবারের সন্তান তিনি। ১৯৮১ সালে বাবা সিপিআইএম আশ্রিত দুষ্কৃতীদের হাতে খুন হয়েছিলেন। ১৯৯৮ সাল অর্থাৎ দলের জন্মলগ্ন থেকেই তৃণমূল করেছেন তিনি। জানপ্রাণ লড়িয়ে দিয়ে, তৎকালীন শাসকদল বামফ্রন্টের বিরুদ্ধে লড়াই করে নিজের এলাকায় তৃণমূলের অস্তিত্ব টিকিয়ে রেখেছেন। এরপর দল ক্ষমতায় এসেছে! কিন্তু, প্রথম দিনের কর্মী এবং লড়াকু কর্মী হিসেবে কোনোদিনই দলে যোগ্য সম্মান পাননি বলে অভিযোগ করলেন, খড়্গপুর ২ নং ব্লক তৃণমূলের সহ সভাপতি সুশান্ত পাল ওরফে বাচ্চু। বুধবার তাই, পিংলা বিধানসভার অন্তর্গত চক গোপীনাথপুরে শুভেন্দু’র সভায় বিজেপি’তে যোগ দিয়েই কান ধরে উঠবস করলেন সুশান্ত। বললেন, “তৃনমূল করে ভুল করেছি!”

thebengalpost.in
মঞ্চেই কান ধরে উঠবস তৃণমূল নেতার :

মোবাইলে খবর পেতে জয়েন করুন
Whatsapp Group এ

১৯৯৮ সাল থেকে তৃনমূল করে প্রায়শ্চিত্ত করার জন্য বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারীর সামনেই কান ধরে উঠবস করলেন সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া তৃণমূল নেতা সুশান্ত পাল (বাচ্চু)। তৃণমূল জেলা সভাপতি অজিত মাইতি ও তৃণমূল নেতা বিশ্বজিৎ মুখার্জীর খুবই ঘনিষ্ঠ ছিলেন এই সুশান্ত। অপরদিকে, জেলার রাজনীতিতে শুভেন্দু অনুগামী বলেই পরিচিত ছিলেন তিনি। এমনকি, প্রাক্তন ক্রীড়া মন্ত্রী মদন মিত্রের সঙ্গেও ছিল তাঁর ঘরোয়া সম্পর্ক। বুধবার পিংলা বিধানসভার চকগোপীনাথপুরে বিজেপির যোগদান মেলায় তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন এই নেতা। তারপরই মঞ্চে শুভেন্দু অধিকারী থাকাকালীন তিনি কান ধরে বার চারেক উঠবস করলেন। তিনি বললেন, “তৃনমূল করেছিলাম, তাই কান ধরে উঠবস করে, প্রায়শ্চিত্ত করে বিজেপিতে যোগ দিলাম।” দীর্ঘদিনের তৃণমূল কর্মী সুশান্তের এই কান্ড নিয়েই এখন জেলা রাজনীতিতে নতুন জল্পনা শুরু হয়েছে! জানা গেল মঞ্চ থেকে নেমে ঘনিষ্ঠ মহলে সুশান্ত জানিয়েছেন, “শুনছি পিংলা বিধানসভা থেকে তৃণমূলের হয়ে দাঁড়াতে পারেন জেলা সভাপতি অজিত মাইতি। তাঁকে হারানোই এখন আমার প্রধান লক্ষ্য।”

thebengalpost.in
পিংলায় তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগদান করলেন সুশান্ত পাল :

আরও পড়ুন -   রাজপথে টানা ৬ দিন! এবার আমরণ অনশন আর ভোট বয়কটের ডাক পশ্চিম মেদিনীপুরের হাজারখানেক হবু শিক্ষকের