আগামী ১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে রাজ্য সরকারী কর্মচারীদের বকেয়া ডিএ মিটিয়ে দেওয়ার নির্দেশ স্যাটের

THEBENGALPOST.IN
রাজ্য সরকারি কর্মচারী মহলে খুশির হাওয়া :
.

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, কলকাতা, ২৩ সেপ্টেম্বর : ঐতিহাসিক রায় স্যাট বা স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইবুনালের। পুজোর আগেই সুখবর এল, পশ্চিমবঙ্গের সরকারি কর্মচারী মহলে। আগামী ১৬ ডিসেম্বর, ২০২০ এর মধ্যে রাজ্য সরকারী কর্মচারীদের বকেয়া ডিএ মিটিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিল স্যাট (State Administrative Tribunal)। ২০১৯ এর জুলাই মাসে, স্যাট এই মর্মে নির্দেশ দিয়েছিল, রাজ্য সরকারকে। কিন্তু, ১ বছর হয়ে গেলেও, সেই নির্দেশ রাজ্য সরকার কার্যকরী না করায়, আদালত অবমাননার মামলা করেছিল, সরকারি কর্মচারী সংগঠন। সেই মামলারই ভার্চুয়াল শুনানিতে আজ এই অর্ডার হয়।

THEBENGALPOST.IN
রাজ্য সরকারি কর্মচারী মহলে খুশির হাওয়া :

.

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, রাজ্য প্রশাসনিক ট্রাইব্যুনাল (স্যাট) রাজ্য সরকারি কর্মীদের যাবতীয় বকেয়া মেটানোর নির্দেশ দিয়েছিল। সেই নির্দেশে বলা হয়েছিল, ষষ্ঠ বেতন কমিশনের সুপারিশ কার্যকর করার আগেই ২০০৬ সাল থেকে বকেয়া যাবতীয় পাওনা সরকারি কর্মীদের মিটিয়ে দিতে হবে। কেন্দ্রীয় হারে ডিএ বা মহার্ঘ ভাতার দাবি তুলে স্যাটে মামলা করেছিল কংগ্রেস সমর্থিত ‘কনফেডারেশন অব স্টেট গভর্মেন্ট এমপ্লয়িজ়’ ছাড়াও আরও দু’টি সরকারি কর্মীদের সংগঠন। উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে স্যাট যে রায় দিয়েছিল তাতে বলা হয়, ডিএ দেওয়া বা না দেওয়া রাজ্যের ইচ্ছার উপরে নির্ভর করে। স্যাটের সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ করে ২০১৭ সালের ৩০ মার্চ কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয় সরকারি কর্মচারিদের সংগঠন। এর পরে ২০১৮ সালের ৩১ অগস্ট, কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি দেবাশিস কর গুপ্ত ও বিচারপতি শেখর ববি শরাফের ডিভিশন বেঞ্চ রায়ে বলে, ডিএ সরকারি কর্মীদের অধিকার। একই সঙ্গে মামলাটি পুনরায় স্যাটে ফিরিয়ে দিয়ে ডিভিশন বেঞ্চ জানায়, ডিএ কীভাবে ও কী হারে দেওয়া হবে, তা বিচার করে স্যাট তিন মাসের মধ্যে জানাবে। সেই রায়েই ২০১৯ এর জুলাই মাসে, স্যাট রাজ্য সরকারকে ৩ মাসের মধ্যে নির্দেশিকা জারি করে, ৬ মাসের মধ্যে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল। এক‌ বছর হয়ে যাওয়ার পরও নির্দেশিকা জারি না হওয়ায়, আদালত অবমাননার মামলা করেছিল রাজ্য কর্মচারী সংগঠনগুলি। আজ সেই মামলার ফলাফল ঘোষণা করে স্যাটের পক্ষ থেকে অর্ডার দেওয়া হয়, ১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে বকেয়া ডিএ দিয়ে দিতে হবে। নাহলে, স্যাট পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করতে বাধ্য হবে। সরকারি কর্মীদের সংগঠনের তরফে সিনিয়র অ্যাডভোকেট সর্দার আমজাদ আলি বলেন, “রাজ্য বারবারই হারার পরেও ডিএ মিলছিল না। এর পরেই আদালত অবমাননার মামলা হয়। সেখানেই ১৬ ডিসেম্বর চূড়ান্ত তারিখ ঘোষণা করেছে স্যাট। কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের সমান হারে ডিএ দিতে হবে। চিফ সেক্রেটারিকে এই নির্দেশ পালন করার রায় দিয়েছে স্যাট।” এদিন সর্দার আমজাদ আলির সঙ্গে ছিলেন আরও দুই অ্যাডভোকেট, মাসুম আলি সর্দার এবং ফিরদৌস শামিম।

.
.

জেলা থেকে রাজ্য, রাজ্য থেকে দেশ প্রতি মুহূর্তের খবরের আপডেট পেতে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক বুক পেজ এবং যুক্ত হোন Whatsapp Group টিতে