মায়ের পর শালবনীতে সদ্যজাতের রিপোর্টও পজিটিভ, উপসর্গহীন দু’জনই, ডেবরা, বেলদা, সবং সহ জেলায় ২৩২ জন সংক্রমিত গত ৪৮ ঘন্টায়

Corona infected mother and baby getting well

thebengalpost.in
শালবনী করোনা হাসপাতাল :
.

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, পশ্চিম মেদিনীপুর, ১৪ সেপ্টেম্বর: পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের রবিবার রাতের রিপোর্ট অনুযায়ী, জেলায় করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ১২০ জন। অপরদিকে, সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) রাতের রিপোর্ট অনুযায়ী করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ১১২ জন। সবমিলিয়ে, গত ৪৮ ঘন্টায় ২৩২ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে বলে জানা গেছে জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে। সোমবার পর্যন্ত জেলায় চিকিৎসাধীন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৯১৩ জন। মৃত্যু হয়েছে ১০৭ জনের।

thebengalpost.in
শহর থেকে গ্রাম সংক্রমণ আজ নিয়ন্ত্রণে :

.
.

রবিবার রাতের রিপোর্ট অনুযায়ী, মেদিনীপুর (১৮) ও খড়্গপুর (৬৩) মিলিয়ে ৮১ জন এবং বেলদা, ঘাটাল, দাসপুর, ক্ষীরপাই, গোয়ালতোড়,‌ দাঁতন, কেশিয়াড়ি ও সবং মিলিয়ে ৩৯ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। গত কয়েকদিনের তুলনায়, স্বাভাবিকভাবেই সংক্রমণের তীব্রতা অনেকখানি কম থাকায় স্বস্তিতে সাধারণ মানুষ। তবে, শালবনী করোনা হাসপাতালে ভর্তি থাকা গোয়ালতোড়ের কাদাড়িয়া গ্রামের এক ২৪ বছর বয়সী করোনা সংক্রমিত প্রসূতি’র সদ্যজাত সন্তানের রিপোর্টও পজিটিভ এসেছে গতকাল (রবিবার) এর র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টে। গত ১২ সেপ্টেম্বর শালবনী করোনা হাসপাতালে সম্পূর্ণ সুস্থ ও স্বাভাবিকভাবে ওই প্রসূতি সন্তানের জন্ম দিয়েছেন বলে জানা গেছে, হাসপাতাল সূত্রে। সদ্যজাত সম্পূর্ণ সুস্থ আছে বলেও জানা গেছে লেভেল ফোর করোনা হাসপাতাল সূত্রে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত ৮ সেপ্টেম্বর করোনা রিপোর্ট পজিটিভ (উপসর্গহীন) নিয়ে, শালবনী কোভিড হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন গোয়ালতোড়ের এই প্রসূতি। ইতিমধ্যে তিনি প্রায় সুস্থও হয়ে উঠেছেন বলে জানা গেছে। গত ১২ সেপ্টেম্বর তিনি শালবনী করোনা হাসপাতালে‌ সন্তান প্রসব করেন স্বাভাবিকভাবে (নর্মাল ডেলিভারি)। এরপর, ১৩ সেপ্টেম্বর মা ও সন্তানের নমুনা পরীক্ষা করা হলে দেখা যায়, মা ইতিমধ্যে করোনা মুক্ত হয়েছেন, কিন্তু, সদ্যজাত উপসর্গহীন করোনায় আক্রান্ত। মা ও সন্তান সম্পূর্ণ সুস্থ আছে বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের নবনিযুক্ত সুপার ডাঃ নবকুমার দাস।

thebengalpost.in
শালবনী করোনা হাসপাতাল :

.

এদিকে, নারায়ণগড় ব্লকের বেলদায় নতুন করে ফের ৭ জনের শরীরে পাওয়া গেছে করোনা ভাইরাসের জীবাণু। বেলদার মহম্মদপুরে একই পরিবারের ৩ জন (বৃদ্ধ-৭৩, বৃদ্ধা-৬৫ এবং যুবক-১৭), দেউলির ১ জন সহ বেলদার বিভিন্ন এলাকায় করোনা সংক্রমণের হদিশ মিলেছে। কেশিয়াড়ির ছোটোপারুয়ায় এক মাঝ বয়স্ক ব্যক্তি (৪৩) করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। দাঁতনের শালিকোঠায় এক বছর ২৪ এর যুবক সংক্রমিত হন। ক্ষীরপাই পুরসভার ৫ নং ওয়ার্ডের এক যুবক (২১) সহ , কাশকুলি, জাড়া, তাতারপুর ও ধরমপুর এলাকায় মোট ৪ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। ডেবরার দলপতিপুর এলাকায় এক বৃদ্ধ (৬২) করোনায় সংক্রমিত হন। এছাড়াও,সবং এর কালিদহছড়ায় (বিষ্ণুপুর বাজার) এক মহিলা (৩২)’র রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে শনিবারের অ্যান্টিজেন টেস্টে। অন্যদিকে, দাঁতনের কাটাপালে এক ব্যক্তি (৪৮) করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। ঘাটাল পুরসভার ১৫ নম্বর ওয়ার্ডের কোন্নগর এলাকায় ১ জন , গোপমহল, খড়ার সহ মোট ৩ জনের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। দাসপুরের দুবরাজপুর ও মহব্বতপুরে ২ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। মোহনপুর ব্লকে ২ জনের (পলাশিয়া ও তারানিয়া) করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে‌ বলে জানা গেছে জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে।
***সোমবার জেলায় সংক্রমিত হয়েছেন প্রায় ১১২ জন। সেই তথ্য তুলে ধরার চেষ্টা করব আমরা। চোখ রাখুন দ্য বেঙ্গল পোস্টে।

.

জেলা থেকে রাজ্য, রাজ্য থেকে দেশ প্রতি মুহূর্তের খবরের আপডেট পেতে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক বুক পেজ এবং যুক্ত হোন Whatsapp Group টিতে