কমেডিভাইনের হাত ধরে মেদিনীপুর শহরে হাসির ভ্যাকসিন “নাসিফ”

বিজ্ঞাপন

সুদীপ্তা ঘোষ, মেদিনীপুর, ২০ ডিসেম্বর: হাস্যকৌতুকের নতুন ধারায় সামিল হল, মেদিনীপুরের যুব সমাজ। মেদিনীপুরের নিজস্ব সংগঠন “কমেডিভাইন” গ্রুপের পরিচালনায় শনিবার (১৯ ডিসেম্বর) মেদিনীপুর শহরের গোলকুয়ারচক এলাকার “স্পাইস অ্যান্ড আইস” রেস্টুরেন্টের অভিজাত (ব্যাঙ্কোয়েট হলে) প্রেক্ষাগৃহে মালদার বাসিন্দা, সোশ্যাল মিডিয়ার তথা আন্তর্জাতিক কৌতুক শিল্পী নাসিফ আখতারের একটি “স্ট্যান্ড আপ কমেডির” আয়োজন করা হয়েছিল। করোনার কথা মাথায় রেখেই অল্প পরিমাণে আসন সংরক্ষণ করা হয়েছিল, যার ই-টিকিট আগেই অনলাইনে কাটতে হয়েছিল। ঢোকার সময় প্রত্যেক দর্শকের মুখে মাস্ক আছে কিনা এবং দৈহিক তাপমাত্রা মেপে তবেই ভেতরে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়েছিল।

thebengalpost.in
নাসিফ মেদিনীপুরে :

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মালদার মতো ছোটোখাটো মফস্বল শহরের ছেলে হয়েও, ওখানেই আটকে থাকেননি নাসিফ আখতার। কৌতুক অভিনেতা হিসেবে তাঁর পথ চলা শুরু হয় ২০১৬ সাল থেকে। মাত্র ৫ বছরেই সোশ্যাল মিডিয়া এবং স্ট্যান্ড আপ কমেডি জগতের অন্যতম নাম হিসেবে পরিচিতি নাসিফের। ইতিমধ্যেই ফেসবুকে তাঁর ৮০ হাজারেরও বেশি ফলোয়ারস রয়েছে। ভারত, থাইল্যান্ড, সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, বাংলাদেশ, নেপাল, স্কটল্যান্ড এবং ইংল্যান্ড সহ আরো বিভিন্ন জায়গায় ইতিমধ্যেই প্রায় ৮০০ টিরও বেশি অনুষ্ঠান করেছেন নাসিফ। সম্প্রতি, এপ্রিলে ইউনাইটেড স্টেটস অফ আমেরিকা এবং ইউরোপেও অনুষ্ঠান করতে যাওয়ার কথা আছে ২৮ বছরের এই তরুণ কৌতুক অভিনেতার। ভারতের সব থেকে বড়ো “স্ট্যান্ড আপ কমেডি” প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয়েছিলেন নাসিফ। এছাড়াও, বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয়ে, কৌতুকাভিনেতা হিসেবে নিজেকে বার বার প্রমাণ করেছেন তিনি। অসাধারণ কমিক টাইমিং এবং দুর্দান্ত পারফরমেন্সের জন্য গোটা ভারতবর্ষের তরুণ প্রজন্মের কাছে ভীষণ প্রিয় হয়ে উঠেছেন নাসিফ।

thebengalpost.in
কমেডিভাইনের হাত ধরে মেদিনীপুর শহরে হাসির ভ্যাকসিন “নাসিফ :

বিজ্ঞাপন

অপরদিকে, মেদিনীপুর শহরের বুকেই তরুণ কৌতুক অভিনেতা, লেখক, র‌্যাপার এবং চলচ্চিত্র নির্মাতাদের একটি সংগঠন হলো “কমেডিভাইন”। সোশ্যাল মিডিয়া এবং নানারকম অনুষ্ঠানের মাধ্যমে মানুষকে হাসানোর দায়িত্ব নিয়েছে এই সংগঠনটি। এই গ্রুপের এক্সিকিউটিভ প্রোডিউসার হলেন, আকিব বেগ। যিনি নিজেও একজন “স্ট্যান্ড আপ কমেডিয়ান”। ক্রিয়েটিভ হেড হলেন অর্কপ্রভ দত্ত, ডাইরেকশন হেড হলেন শোভন রায়, এডিটিং হেড হলেন নেহাল মারিক, কো-প্রডিউসার হলেন ঋষি মুন্দ্রা, কনটেন্ট ক্রিয়েটার গৌরব সান্যাল। ক্যামেরার দায়িত্বে আছে রোহন সরখেল এবং অরিত্র রায়। নানারকম মজার কন্টেন্ট নিয়ে ইউটিউবে ভিডিও বানায়, “কমেডিভাইন”। আশা করা যায়, ভবিষ্যতেও এদের মাধ্যমে আরো নতুন নতুন হাসির অনুষ্ঠান এবং ভিডিওর সাক্ষী থাকবে মেদিনীপুর।

thebengalpost.in
কমেডিভাইনের হাত ধরে মেদিনীপুর শহরে হাসির ভ্যাকসিন “নাসিফ” :

বিজ্ঞাপন

জেলা থেকে রাজ্য, রাজ্য থেকে দেশ প্রতি মুহূর্তের খবরের আপডেট পেতে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক বুক পেজ এবং যুক্ত হোন Whatsapp Group টিতে