নামবে তাপমাত্রা! দুই মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম সহ সারা রাজ্যেই জাঁকিয়ে পড়তে চলেছে ‘শীত’

.

দ্য বেঙ্গল পোস্ট বিশেষ প্রতিবেদন, সায়নী দাশগুপ্ত, ৩ নভেম্বর: নভেম্বর থেকেই সাধারণত শীতের আমেজ অনুভূত হয়। এবছর পুজো একটু দেরি করেই পড়েছিল, স্বাভাবিকভাবেই পুজোর পর থেকে শীত অনুভূত হচ্ছে রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায়। জঙ্গলমহলের পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, বাঁকুড়া, পুরুলিয়ায় সন্ধ্যার পর রীতিমতো ঠান্ডার আমেজ। আর ভোরের দিকে তো লেপ না হলেও, কাঁথা কিংবা বিছানার চাদর মুড়ি দিতে হচ্ছে। এই বছর, অক্টোবরের শেষের দিক থেকেই বইতে শুরু করেছিল উত্তুরে হাওয়া। পূর্বাভাস ছিল রেকর্ড ঠান্ডা পড়ার।
thebengalpost.in

.
.

এদিকে, গত কয়েকদিনে তাপমাত্রা কিছুটা স্বাভাবিক হলেও, আগামীকাল অর্থাৎ বুধবার থেকেই ফের দক্ষিণবঙ্গের পারদ পতন হবে বা তাপমাত্রা কমতে শুরু করবে। শুধু, জঙ্গলমহলই নয়, রাত ও ভোরের দিকে এবার হালকা শীতের আমেজ পাওয়া যাবে, সারা রাজ্যেই। আবহাওয়ার সূত্রের খবর, খুব তাড়াতাড়ি রাজ্যে তাপমাত্রা নেমে যেতে পারে ২০ ডিগ্রির নীচে। আগামীকাল থেকে ধীরে ধীরে তাপমাত্রা নামবে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে। ইতিমধ্যে, পুরো উত্তর ভারতে শীতের মরশুম শুরু হয়ে গেছে, বিভিন্ন অঞ্চলে তাপমাত্রা বেশ খানিকটা নেমেছে। আজ (৩ নভেম্বর) দিল্লিতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১০.০ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা গত ২৬ বছরের রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে। অন্যদিকে লুধিয়ানা, দেরাদুন, পাঞ্জাব, পুনে, হরিয়ানা প্রভৃতি রাজ্যের তাপমাত্রা ১৩ ডিগ্রির আশেপাশে রয়েছে। উওরবঙ্গের জেলাগুলিতেও আগামী ক’দিনের মধ্যে হালকা শীতের আমেজ অনুভব করা যাবে।

.
.

জেলা থেকে রাজ্য, রাজ্য থেকে দেশ প্রতি মুহূর্তের খবরের আপডেট পেতে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক বুক পেজ এবং যুক্ত হোন Whatsapp Group টিতে