ঘরের মানুষদের ঘরে ফিরিয়ে মানবিকতার নজির গড়লেন মেদিনীপুরের ঘরের ছেলে দেব

দ্য বেঙ্গল পোস্ট

বিশেষ প্রতিবেদন, সুদীপ্তা ঘোষ, ৬ জুন : ভিন রাজ্যে আটকে থাকা পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরত পাঠানোর জন্য সরকার, প্রশাসন থেকে শুরু করে বিভিন্ন সেলিব্রেটি বা অভিনেতারাও হাত বাড়িয়েছেন। কিছুদিন আগেই প্রায় ২ হাজার মতো পরিযায়ী শ্রমিককে নিজেদের বাড়ি পাঠান বলিউডের অভিনেতা সনু সুদ। এবার সেরকমই এক নজির গড়লেন, তারকা সাংসদ দেব তথা মেদিনীপুরের ঘরের ছেলে দীপক অধিকারী।

দ্য বেঙ্গল পোস্ট
দেবের টুইট  :

ভিন রাজ্য নয়, ভিন দেশ নেপালে গিয়ে আটকে পড়েছিলেন পশ্চিমবঙ্গের ৩৬ জন শ্রমিক। কাজের সুত্রে সেখানে আটকে পড়েছিলেন ওই শ্রমিকরা। তাদের মধ্যে দুজন অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন।

ঘাটালের তৃণমূল সাংসদের উদ্যোগে, তাদের সবাইকে রাজ্যে অর্থাৎ নিজেদের বাড়িতে ফিরিয়ে আনা হয়। এর মধ্যে ৪ জন মহিলা সহ ৩০ জন শ্রমিক ঘাটালের স্থানীয় বাসিন্দা। বাকিদের মধ্যে ২ জন আরামবাগ এবং বাকি ৪ জন বাঁকুড়ার বাসিন্দা। প্রধানত এই শ্রমিকেরা প্রত্যেকেই স্বর্ণ শিল্পের সাথে সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। যথাযথ কাগজপত্র না থাকায় ভারত-নেপাল সীমান্তে আটকে পড়েছিলেন।এই খবর ঘাটালের সাংসদের অর্থাৎ দেবের কাছে পৌঁছতেই তিনি দার্জিলিঙের জেলা শাসকের সঙ্গে যোগাযোগ করেন এবং জানতে পারেন সীমান্ত পার করতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের অনুমতি নিতে হবে। এরপরই তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাথে যোগাযোগ করে প্রয়োজনীয় অনুমতি নেন, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র দফতর থেকে। সূত্র থেকে জানা যায় মঙ্গলবার একটি বাস ঘাটাল থেকে রওনা দেয় এবং বৃহস্পতিবার ওই ৩৬ জন শ্রমিক কে সীমান্ত থেকে নিয়ে দেশে ফিরে আসে।

দ্য বেঙ্গল পোস্ট
সাংসদ দীপক অধিকারী :

দেব তার ফেসবুকের ওয়ালে একটি পোস্ট করে মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। স্বাস্থ্য দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে ফেরত আসা সকল শ্রমিকদের লালারসের নমুনা সংগ্রহ করা হবে। সূত্র অনুযায়ী, নেপালে, জম্মু-কাশ্মীরে এখনও বাংলার অনেক শ্রমিক আটকে রয়েছে। সকলকেই রাজ্যে ফেরানোর চেষ্টা চালানো হচ্ছে বলে আশ্বাস দেন দেব।