করোনা মুক্ত হয়েও শেষ রক্ষা হলনা! চলে গেলেন এসপি বালা শুব্রামনিয়াম

.

বিশেষ প্রতিবেদন, সুদীপ্তা ঘোষ, ২৫ সেপ্টেম্বর : করোনা মুক্ত হয়েও শেষ রক্ষা হলনা! প্রয়াত হলেন, বিখ্যাত গায়ক এসপি বালাসুব্রামানিয়াম। শুক্রবার সকালে, এমজিএম হেলথ কেয়ার হাসপাতালেই তাঁর অকাল প্রয়াণ ঘটে। ১৩ আগস্ট তাঁর স্বাস্থ্যের অবনতি ঘটে। এরপর ভেন্টিলেটর এবং কৃত্রিম শ্বাসযন্ত্রের সাহায্যে তাঁকে সুস্থ করার প্রচেষ্টা চলছিল। নিজের করোনা নেগেটিভ হওয়ার খবর তিনি একটি ভিডিও পোস্ট করে হাসপাতাল থেকেই জানিয়েছিলেন! তারপরই এই এই আকস্মিক দুর্ঘটনায় মর্মাহত শিল্পী, কলাকুশলী থেকে রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব ও সাধারণ সঙ্গীতপ্রেমীরা!

দ্য বেঙ্গল পোস্ট
নরেন্দ্র মোদির টুইট :

.

গত মাসের শুরুতেই করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন, এস পি বালাসুব্রামানিয়াম। গত, ৫ আগস্ট তাঁকে এমজিএম হেলথ কেয়ারে ভর্তি করা হয়েছিল। ভর্তির পর থেকেই একাধিকবার সংকটজনক পরিস্থিতির তৈরি হয়েছিল তাঁর। কিন্তু প্রতিবারই সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন তিনি। গতকাল অর্থাৎ ২৪ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার হাসপাতালের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল, তাঁর স্বাস্থ্যের অবনতি ঘটছে। শেষ ২৪ ঘন্টা তাঁকে একটি মেডিকেল টিমের পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছিল। কিন্তু, তাতেও শেষ রক্ষা হলনা! রাত কাটতেই সংগীত জগতে আঁধার নেমে এলো!

দ্য বেঙ্গল পোস্ট
মমতা ব্যানার্জির টুইট :

.

বলিউড এবং সাউথ ইন্ডাস্ট্রির একাধিক চলচ্চিত্রে সঙ্গীত পরিবেশন করেছিলেন, এসপি বালাসুব্রামানিয়াম। তাঁর বিখ্যাত গান “সাথিয়া তুনে কেয়া কিয়া”, “দেখা হ্যা পেহলি বার”, “দিল দিবানা বিন সাজনাকে”, “মেরে রঙ্গ মে রঙ্গনে ওয়ালি” প্রভৃতি গানগুলো আজও সকলের পছন্দের গানের তালিকায় থাকে। একসময় সলমন খান এবং এসপি বালাসুব্রামানিয়াম এর জুটি সুপার হিট ছিল। তিনি “পদ্মশ্রী”, “গিমা”, “ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড”, “ন্যাশনাল ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড”, এবং আরও অনেক পুরস্কারে সম্মানিত হয়েছিলেন তাঁর অসাধারণ সঙ্গীত প্রতিভার জন্য। তাঁর চির বিদায়ে, সঙ্গীত জগতের এক অপুরণীয় ক্ষতি হল এবং এই ক্ষতি কোনদিন পূরণ হবেনা বলে মনে করছেন, সংগীতে শিল্পীর। তাঁর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, এ আর রহমান, সলমন, শাহরুখ সহ সকল শিল্পিরাই।

দ্য বেঙ্গল পোস্ট
সালমান খান ও এ আর রহমান এর টুইট :

.

জেলা থেকে রাজ্য, রাজ্য থেকে দেশ প্রতি মুহূর্তের খবরের আপডেট পেতে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক বুক পেজ এবং যুক্ত হোন Whatsapp Group টিতে