করোনার অব্যর্থ ওষুধ আবিষ্কার হল ভারতেই! তথ্য সমেত দাবি করলেন বাবা রামদেব

Advertisement

বিশেষ প্রতিবেদন, সুদীপ্তা ঘোষ, ২৩ জুন : বিশ্বে যেখানে প্রত্যেকটি দেশ করোনার প্রতিষেধক আবিষ্কারের জন্য দিন-রাত এক করে গবেষণা চালাচ্ছে, একের পর এক পরীক্ষা নিরীক্ষা করছে; তা সত্বেও এখনও পর্যন্ত নিশ্চিত ভাবে বলতে পারছেন না এর সম্পর্কে, সেখানে স্বয়ং যোগগুরু বাবা রামদেব ঘোষণা করলেন, তাঁদের পতঞ্জলি সংস্থার তৈরি “করোনিল” ওষুধটি মাত্র ৭ দিন সেবন করলেই, ১০০ শতাংশ করোনা মোকাবিলায় কার্যকরী হবে।

দ্য বেঙ্গল পোস্ট
বাবা রামদেবের দাবি :

প্রধানত তুলসী, গুলঞ্চ এবং আশ্বগন্ধার মিশ্রণে তৈরি হয়েছে এই “করোনিল” ওষুধটি। বাবা রামদেব একটি সংবাদ মাধ্যমের সামনে জানান “করোনিল” এবং “স্বসারি” এই দুটি ওষুধ সারাবিশ্বের ২৮০ জন করোনা রোগীর ওপর প্রয়োগ করা হয়েছে এবং করোনা নিরাময়ে সাফল্য পাওয়ার পরই এই ধরনের দাবি করা হচ্ছে। মাত্র তিনদিনে ৬৯ শতাংশ এবং ৭ দিনের মধ্যেই সম্পূর্ণ রূপে সেইসব রোগীরা সুস্থ হয়ে উঠেছেন। এমনকি এখনও পর্যন্ত কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ারও খবর পাওয়া যায়নি।
দ্য বেঙ্গল পোস্ট
করোনা’র ওষুধ :

হরিদ্বারের পতঞ্জলি রিসার্চ ইনস্টিটিউট এবং জয়পুরের নেশন্যাল ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্স এর যৌথ উদ্যোগে এই ওষুধটি প্রস্তুত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। মূলত, এই ওষুধটি কেবল ৩০ দিনের জন্য ব্যাবহার করা যাবে এবং কিছুদিনের মধ্যেই পতঞ্জলির সব স্টোরে পাওয়া যাবে। তবে যোগ গুরুর এই দাবি মানতে নারাজ বৈজ্ঞানিকরা। তাঁরা দাবি জানিয়েছেন, যেখানে এটি কোনো বৈজ্ঞানিক পরিসরে পরীক্ষা করা হয়নি সেখানে এখনই এটা নিয়ে এত মাতামাতি করার কোনো মানে হয়না! মহারাষ্ট্রের MGIMS এর মেডিসিনের প্রফেসর ডঃএসপি কালান্ত্রি জানান , “এই পরীক্ষা থেকে কোনও নিশ্চিন্ত উপসংহার টানতে বিরত করব। আগে ওষুধটার মেথডলজি, ডিজাইন, সমস্ত ডেটা খুঁটিয়ে দেখা হোক। তারপরেই বলা যাবে এটি কোভিড আক্রান্তের জন্য নিরাপদ কিনা।”
দ্য বেঙ্গল পোস্ট
আচার্য বালাকৃষ্ণন (পতঞ্জলি) এর দাবি :

Advertisement