আক্রান্তের হারে টেক্কা দেওয়ার পর এবার সুস্থতার হারেও টেক্কা পশ্চিম মেদিনীপুরের, ঝাড়গ্রাম ফের করোনা মুক্ত হওয়ার পথে

Advertisement

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন,২০ জুন : একটা সময় পশ্চিম মেদিনীপুরে দ্রুত বাড়ছিল করোনা আক্রান্তের সংখ্যা।গত ৭ জুন, একদিনে ৮৪ জন আক্রান্ত হওয়ার পর, আক্রান্তের সংখ্যা আর থেমে থাকেনি, টপকে গিয়েছিল পূর্ব মেদিনীপুরকেও! বাড়তে বাড়তে ৩০০ পেরিয়ে গিয়েছিল! তবে, এই মুহূর্তে সুস্থতার হারেও চমকে দিল পশ্চিম মেদিনীপুর। সর্বমোট ৩২৯ জন আক্রান্তের মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২৬৯ জন, শতকরা ৮০ শতাংশেরও বেশি! গত চব্বিশ ঘণ্টায় জেলায় সুস্থ হয়েছেন ৪৫ জন। শনিবার রাজ্যের করোনা বুলেটিন অনুযায়ী পশ্চিম মেদিনীপুরে এখন চিকিৎসাধীন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা মাত্র ৫৭। যদিও এই হিসেব রাজ্য স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের। জেলা স্বাস্থ্য ভবনের হিসেবে আক্রান্তের সংখ্যা ও চিকিৎসাধীন আক্রান্তের সংখ্যা দুটিই আরো কম। সেখানে পূর্ব মেদিনীপুরে সুস্থতার হার মাত্র ৫০ শতাংশের সামান্য বেশি! ২৪৪ জনের মধ্যে ১২৩ জন সুস্থ এবং ১১৮ জন চিকিৎসাধীন। দুই জেলাতেই সরকারি হিসেবে ৩ জন করে করোনা আক্রান্ত মারা গেছেন। তবে, বেসরকারি হিসেবে শুধু পশ্চিম মেদিনীপুরেই করোনা আক্রান্ত হয়ে (কো-মর্বিডিটি সহ) মৃত্যুর সংখ্যা ৬-৭ জন। কারণ, মৃত্যুর পর ঘাটাল মহকুমারই ৩-৪ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে, খড়্গপুরে ৩ জন।

দ্য বেঙ্গল পোস্ট
মেদিনীপুরের করোনা হাসপাতাল লেভেল ১ :

Advertisement

এদিকে স্বস্তির হাওয়া অরণ্য সুন্দরী ঝাড়গ্রামেও! চিকিৎসাধীন করোনা আক্রান্ত মাত্র ১ জন। একটা সময় ঝাড়গ্রাম করোনা মুক্ত হয়ে গিয়েছিল; কিন্তু দিনকয়েক আগেই (১৫ জুন) একসাথে ৮ জন করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর চিন্তিত হয়ে পড়েছিলেন জেলাবাসী! শনিবার রাজ্যের দেওয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, ওই ৮ জনের মধ্যে ৭ জনই সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। তাই, এই মুহূর্তে ঝাড়গ্রামে চিকিৎসাধীন করোনা আক্রান্ত মাত্র ১ জনই। সবমিলিয়ে, ঝাড়গ্রামের ১৯ জন করোনা আক্রান্তের মধ্যে ১৮ জন সুস্থ হয়ে উঠলেন। সুস্থতার হার ৯৫ শতাংশ!

দ্য বেঙ্গল পোস্ট
ঝাড়গ্রাম আবার করোনা মুক্ত হওয়ার পথে :