খড়্গপুরে ফের এক করোনা আক্রান্ত রেল কর্মচারীর মৃত্যু, গত এক সপ্তাহে শতাধিক আক্রান্তকে সুস্থ করল মেদিনীপুরের আয়ুশ হাসপাতাল

Advertisement

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, পশ্চিম মেদিনীপুর, ১৭ জুন : খড়্গপুরে ফের এক করোনা আক্রান্ত রেলওয়ে কর্মচারী’র মৃত্যু হল। সোমবার (১৫ জুন) সকালে প্রবল শ্বাসকষ্ট ও পায়খানার উপসর্গ নিয়ে ৫৮ বছর বয়সী ওই রেলওয়ে কর্মচারী ভর্তি হয়েছিলেন রেলের হাসপাতলে। প্রথমে সাধারণ ওয়ার্ডে তাঁকে ভর্তি করা হলেও, দ্রুত তাঁকে আইসোলেশনে পাঠানো হয় এবং লালারসের নমুনা সংগ্রহ করে পাঠানো হয় মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজের ল্যাবরেটরি। মঙ্গলবার তাঁর অবস্থা আরো গুরুতর হয় এবং ঐ দিনই মেডিক্যাল কলেজ থেকে তাঁর রিপোর্ট আসে করোনা পজটিভ! বুধবার সকালে ঐ ব্যক্তির মৃত্যুর খবর পাওয়া যায় হাসপাতাল সূত্রে। স্থানীয় প্রশাসন মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করলেও, করোনা কারণেই তাঁর মৃত্যু কিনা নিশ্চিত করেনি। জেলা স্বাস্থ্য ভবন সূত্রেও জানানো হয়েছে, ঐ ব্যক্তির কো-মর্বিডিটি ছিল। তাই কো-মর্বিডিটি’র সঙ্গে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বলা যেতে পারে বলে জানিয়েছেন এক আধিকারিক।

Advertisement
দ্য বেঙ্গল পোস্ট
ফের মৃত্যু হল এক করোনা আক্রান্তের :

খড়্গপুরের মৃত রেলওয়ে কর্মচারী ৪ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা ছিলেন। তিনি, খড়্গপুর থেকে রেলের বিশেষ ট্রেনে করে নিজের কর্মস্থল (উলুবেড়িয়া) এ যাতায়াত করতেন বলে জানা যায়। সেই সময়ই সংক্রমিত হতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে। ঐ ব্যক্তির করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর আসার পরই, খড়্গপুরের লোহানিয়া হাই স্কুল সংলগ্ন এলাকা ইতিমধ্যে, কনটেইনমেন্ট জোন ও বাফার জোন হিসেবে সিল করে দেওয়া হয়েছে। এদিকে এই নিয়ে, খড়্গপুরের দ্বিতীয় রেল কর্মচারীর মৃত্যু হল, করোনা আক্রান্ত হয়ে। যদিও আগেরজনের মৃত্যু হয়েছে কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে। তবে, এর আগে খড়্গপুরের ৪৫ বছর বয়সী এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে মেদিনীপুরের করোনা হাসপাতাল লেভেল – ২ (গ্লোকাল)’তে। সেই সময় যদিও, ঐ মৃত ব্যক্তিকে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু’র তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল। এবার দেখা যাক, এই রেলওয়ে কর্মচারী’কে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হয় কিনা! রাজ্যের করোনা বুলেটিনে, গতকাল পর্যন্ত জেলার করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর তালিকায় ২ জনকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। যদিও, ঘাটাল ও খড়্গপুর মিলিয়ে ইতিমধ্যে ৫-৬ জন ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে, মৃত্যুর পর যাদের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে !

দ্য বেঙ্গল পোস্ট
আয়ুশ হাসপাতাল (ফাইল ছবি) :

অপরদিকে, মেদিনীপুর শহরের উপকণ্ঠে অবস্থিত, আয়ুশ হাসপাতালে (লেভেল ১) ভর্তি হওয়া শতাধিক করোনা আক্রান্ত (উপসর্গহীন বা স্বল্প উপসর্গযুক্ত) সুস্থ হয়ে বা সম্পূর্ণ করোনা মুক্ত হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। এই মুহূর্তে আয়ুশ হাসপাতালে একজনও করোনা চিকিৎসাধীন রোগী নেই বলে জানা গেছে জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে। গতকাল রাজ্যের করোনা বুলেটিনেও, জেলার ১০৩ জন করোনা আক্রান্তের সুস্থ হওয়ার খবর প্রকাশিত হয়েছে।