করোনা’র কামড় এবার মেদিনীপুর সদর ব্লকের গুড়গুড়িপালে, ২০ দিনের মাথায় নারায়ণগড়ের ১০ পরিযায়ী শ্রমিকের রিপোর্ট এল পজিটিভ

দ্য বেঙ্গল পোস্ট
এনায়েতপুর গ্রাম :
Advertisement

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, পশ্চিম মেদিনীপুর, ১৩ জুন : গত কয়েকদিন ধরেই পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায় হু হু করে বেড়ে চলেছে করোনা সংক্রমণ! তবে, বেশিরভাগ সংক্রমণটাই ছিল মূলত ঘাটাল মহকুমা জুড়ে। ঘাটাল ব্লক, দাসপুর ব্লক (১ ও ২) মিলিয়ে মোট সংক্রমণ সেঞ্চুরি পেরিয়ে ডবল সেঞ্চুরির পথে। শুক্রবারের জেলা স্বাস্থ্য ভবনের রিপোর্ট অনুযায়ী, এবার নারায়ণগড় ব্লকে একধাক্কায় ১০ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। ১০ জনই বেলদা থানার অধীন বলে জানা গেছে। আম্বিডাঙড়া ৫ জন, আকন্দা ৩ জন, দেউলী ১ জন ও খাকুড়দাতে ১ জন আক্রান্ত হয়েছেন। উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, প্রত্যেকেই ভিন রাজ্য থেকে এসেছিলেন ২১ মে এবং প্রত্যেকের লালারসের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল গত ২২ মে। মেদিনীপুর মেডিক্যালে নমুনা পৌঁছে গিয়েছিল ২৩ মে। কিন্তু, অত্যধিক নমুনা’র চাপে টেস্ট এবং রিপোর্টে দেরি হয়। ১১ জুন বৃহস্পতিবার রাতে যখন তাদের রিপোর্ট ‘পজিটিভ’ আসে, ততদিনে শ্রমিকদের কোয়ারেন্টিন দশা (১৪ দিন) সম্পূর্ণ হয়ে ২০ দিন হয়ে গেছে। এই সময়ের তারা এবং তাদের বাড়ির লোক অবাধে ঘুরে বেড়িয়েছে বলেই জানিয়েছেন গ্রামবাসীরা। তবে, আশার কথা হল, কারুর মধ্যেই তেমন কিছু উপসর্গ নেই! তাই, সংক্রমণ ছড়ানোর সম্ভাবনাও কম বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য আধিকারিকরা। শুক্রবার বিকেলেই আক্রান্তদের এলাকা সিল করে দিয়ে, যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে প্রশাসনের তরফে।

Advertisement
দ্য বেঙ্গল পোস্ট
বেলদায় প্রশাসনিক আধিকারিকরা :

মেদিনীপুর সদর ব্লকেও ১ জন করোনা আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া গেল। শুক্রবার জেলা স্বাস্থ্য ভবনের রিপোর্ট অনুযায়ী, গুড়গুড়িপাল থানার এনায়েতপুর গ্রামের এক মহারাষ্ট্র ফেরত যুবকের রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এই প্রথম গুড়গুড়িপাল থানায় করোনা আক্রান্তের হদিস পাওয়া গেল ভিন রাজ্যের সংসর্গে! শনিবার সকালে পুলিশ আক্রান্তের এলাকা সিল করে দিয়েছে।

প্রতিটি ক্ষেত্রেই আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য মেদিনীপুরের করোনা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে।