মেদিনীপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে এক বন্দীর রহস্যমৃত্যু, মাত্র ৬ মাস বাকি ছিল সাজার মেয়াদ পূর্ণ হতে

Advertisement

নিজস্ব প্রতিবেদক, মেদিনীপুর, ৯ জুন : মঙ্গলবার সকালে মেদিনীপুর কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে এক সাজাপ্রাপ্ত বন্দীর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করল জেল পুলিশ। ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডে দণ্ডিত ওই বন্দীর সাজার মেয়াদ পূর্ণ হতে বাকি ছিল মাত্র ৬ মাস! পুলিশ জানিয়েছে, ওই ব্যক্তি মানসিক ভারসাম্যহীনতায় ভুগছিলেন, তাই আত্মহত্যা করেছেন। অপরদিকে, মৃতের পরিবারের দাবি, খুন করা হয়েছে ওই ব্যক্তিকে।

Advertisement
দ্য বেঙ্গল পোস্ট
মৃতের পরিচয় :

বছর দশেক আগে, এক আদিবাসী মহিলাকে ধর্ষনের দায়ে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডে দণ্ডিত হয়েছিলেন, গড়বেতা থানার উপরজবা গ্রামের মুক্তার বায়েন (৫৪)। তবে, মাসখানেক ধরে মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেছিলেন বলে জানা যায়। ছ’মাস আগে, জানুয়ারি মাসে প্যারোলে মুক্ত হয়ে তিনি বাড়িও গিয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন তাঁর পত্নী রেহানা বিবি। তাঁর অভিযোগ, “তখনই বাড়ি গিয়ে আমার স্বামী আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন, আমাকে ওরা মেরে ফেলবে। আমাদের ধারনা আমার স্বামীকে মেরে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে।”

দ্য বেঙ্গল পোস্ট
চাঞ্চল্য ছড়াল :

মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজে পাঠানো হয়েছে। তবে, সংশোধনাগার সূত্রে জানা যায়, মানসিক অবসাদের কারণেই ওই ব্যক্তি আত্মহত্যা করেছেন। যদিও এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে, জেলের অন্যান্য বন্দীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়েছে!