প্রায় ৪০০ টির মধ্যে মাত্র ২৬ টি বেসরকারি বাস চলল মেদিনীপুর সেন্ট্রাল বাস স্ট্যান্ড থেকে, যাত্রী সংখ্যায় খুশি নয় মালিকেরা

Advertisement

নিজস্ব প্রতিবেদক, মেদিনীপুর, ৮ জুন : করোনা অতিমারী আর লকডাউন পরিস্থিতিতে গত প্রায় আড়াই মাস ধরে গণ পরিবহন বন্ধ ছিল। গত ১ লা জুন থেকে আনলক-ওয়ান শুরু হয়েছে। রাজ্যেও যাত্রী পরিবহন শুরু করা হয়েছে, নির্দিষ্ট সুরক্ষা বিধি মেনে। চলছে সমস্ত সরকারি বাস। মুখ্যমন্ত্রী ও পরিবহনমন্ত্রী’র আবেদনের পর, গত ১ লা জুন থেকে বেসরকারি বাসও চলছিল একটি-দুটি। কিন্তু, আজ (৮ জুন) থেকে পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হবে বলে মনে করেছিলেন অনেকে। কারণ, আজ থেকে রাজ্যে বিভিন্ন অফিস, হোটেল, রেস্টুরেন্ট, শপিং মল প্রভৃতি খুলে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু, ভাড়া সমস্যা থাকার জন্য এবং সংক্রমণের কারণে যথেষ্ট সংখ্যক মানুষ রাস্তায় না বেরোনোর কারণে, আজকেও বেসরকারি বাস চলল নামমাত্র!

Advertisement
দ্য বেঙ্গল পোস্ট
নামমাত্র বাস নামল রাস্তায় :

স্বাভাবিক সময়ে যেখানে মেদিনীপুর সেন্ট্রাল বাস স্ট্যান্ড থেকে গড়ে প্রতিদিন ৪০০ টি বাস চলে। ৪০০ টির মধ্যে সোমবার মাত্র ২৬ টি বাস চলেছে বলে সন্ধ্যা নাগাদ জানালেন, জেলা আইএনটিটিইউসি’র (পরিবহন) সভাপতি পার্থসারথি ঘনা। পার্থ বাবু এও স্পষ্ট করে দিলেন, “রাস্তায় সামান্য লোকজন নামলেও, বাসগুলিতে তেমন যাত্রী হয়নি। ২৬ টি বাসের মালিক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন সোমবার আশানুরূপ যাত্রী হয়নি, ফলে পাথেয় খরচটুকুও তাদের ওঠেনি! তাই মঙ্গলবার তাঁরা পুনরায় বাস নামাবেন কিনা নিশ্চয়তা নেই!”

দ্য বেঙ্গল পোস্ট
পরিবহন শ্রমিক নেতা পার্থসারথি ঘনা :

অপরদিকে, লালগড় মেদিনীপুর ভায়া পিড়াকাটা রুটের এক মালিক স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, “ভাড়া সমস্যা তো আছেই। পরিবহন শ্রমিকদের সংক্রমণের ভয়ও আছে। এত ঝুঁকি নিয়ে রাস্তায় বাস নামানো এই মুহূর্তে সম্ভব নয়!”