শুধু পশ্চিম মেদিনীপুরেই ক্ষতি প্রায় পাঁচশো কোটির, ধ্বংস একুশ হাজার বাড়ি, পরিদর্শনে জেলা পুলিশ সুপার, পরিযায়ীদের আগমনে বাড়ছে সংক্রমণ, সচেতন থাকার বার্তা

Advertisement

শুধু পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায় ভেঙে পড়েছে ২১ হাজার বাড়ি, এখনো পর্যন্ত ক্ষতি প্রায় ৪৮০ কোটির! জানালেন স্বয়ং জেলাশাসক ডঃ রশ্মি কমল। আজ, জেলা পুলিশ সুপার নিজে বেরিয়েছিলেন দুর্গত এলাকা পরিদর্শনে। পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার মেদিনীপুর সদর ব্লকের আবাস, কেরানীচটী প্রভৃতি এলাকায় আমফানের তান্ডবে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয় ঘর-বাড়ি। সেইসব এলাকা ঘুরে দেখেন‌ পুলিশ সুপার দীনেশ কুমার। ক্ষতিগ্রস্তদের একটি তালিকাও তৈরি করেন তিনি।

Advertisement

অপরদিকে, পরিদর্শন সেরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে জেলা পুলিশ সুপার স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন, “বিভিন্ন রাজ্য থেকে শ্রমিকরা আসার কারণে, সংক্রমণ একটু বেড়েছে। হয়তো কিছুদিন বাড়বেও, এতে আতঙ্কের কিছু নেই। জেলা প্রশাসন সর্বদা সজাগ আছে। উপযুক্ত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে সাথে সাথে।” জেলায় এই মুহূর্তে, ১০ টি কনটেইনমেন্ট জোন (এফেক্টেড ও বাফার মিলিয়ে) আছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। সাধারণ মানুষকে সচেতন থাকার এবং বাড়িতে থাকার পরামর্শও দিয়েছেন জেলা পুলিশ সুপার দীনেশ কুমার।