“পিসিমা-ভাইপোর একনায়কতন্ত্রে দমবন্ধ হয়ে আসছে” গেরুয়ায় মোড়া মেদিনীপুরে ‘বোমা ফাটালেন’ প্রণব বসু, আগামীকালই বিজেপি’তে অনুগামীরা

বিজ্ঞাপন

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, মেদিনীপুর, ১৮ ডিসেম্বর: ঐতিহাসিক মেদিনীপুর শহরে আগামীকাল (১৯ ডিসেম্বর) স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের ঐতিহাসিক সভা! শুধু প্রচারে নয়, বাস্তবিকই এই সভা ‘ঐতিহাসিক’ এই কারণে যে, শাসকদলের এক সময়ের অন্যতম প্রধান সেনাপতি শুভেন্দু অধিকারী’র হাত ধরে গেরুয়া মঞ্চে উঠতে চলেছেন, এক ঝাঁক সাংসদ, বিধায়ক থেকে শুরু করে প্রথম সারির জেলা নেতৃত্ব। যাঁদের মধ্যে বেশিরভাগজনই তৃণমূল প্রতিষ্ঠার প্রথম দিন থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গী ছিলেন! অপরদিকে, অবিভক্ত মেদিনীপুরের ‘অধিকারী’ পরিবারই শুধু নয়, অনেকেই আপাদমস্তক ‘কংগ্রেসী পরিবার’ থেকে উঠে আসা কংগ্রেসী সৈনিক হিসেবে কয়েক দশক পরিচিত ছিলেন! কিন্তু, সারা দেশজুড়ে চলা গেরুয়া ঝড়ে এই বাংলারও সমস্ত হিসেব-নিকেশ ওলট-পালট হয়ে গেছে! তাই, এই সভা ঐতিহাসিকই বটে! ইতিমধ্যে, গেরুয়া পতাকায় মোড়া মেদিনীপুর শহরে, ‘ভূমিপুত্র’ শুভেন্দু অধিকারী’র ছবিও ঢেকে ফেলা হয়েছে, গেরুয়া পতাকা দিয়ে। অন্যদিকে, সভা শুরুর চব্বিশ ঘন্টা আগে, ইস্তফা দিয়ে রীতিমতো বোমা ফাটালেন, মেদিনীপুর পৌরসভার প্রাক্তন পৌরপ্রধান প্রণব বসু। শুধু তাই নয়, ক্যামেরার সামনে স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন, আগামীকালই জননেতা শুভেন্দু অধিকারী’র সঙ্গে তিনিও যাচ্ছেন বিজেপি’তে!

thebengalpost.in
প্রণব বসু :

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

‘দাদা’র (শুভেন্দু অধিকারী’র) অন্যতম বিশ্বস্ত অনুগামী হিসাবে পরিচিত প্রণব বসু আজ দুপুরে তাঁর ইস্তফাপত্র পাঠিয়ে দেন জেলা সভাপতি অজিত মাইতি’র কাছে। ইতিপূর্বে, দল তাঁকে সরিয়ে দিয়েছিল, মেদিনীপুর পৌরসভার পৌর প্রশাসক মণ্ডলী থেকে। তিনি নিজে গিয়ে ইস্তফা দিয়ে এসেছিলেন, জেলা পরিষদের ‘মেন্টর’ পদ থেকে। আর এবার দলের সদস্যপদও পরিত্যাগ করলেন। ইস্তফা দেওয়ার পরই তিনি সংবাদমাধ্যমের সামনে তাঁর দীর্ঘদিনের ‘ক্ষোভ’ প্রকাশ করলেন! স্পষ্টতই জানিয়ে দিলেন, বিজেপিতে যোগদানের কথাও। তিনি বললেন, “কংগ্রেস করেছি। তারপর তৃণমূলের সঙ্গে ছিলাম ১২ বছর ধরে। কিন্তু, এই মুহূর্তে দল যে পদ্ধতিতে চলছে, তাতে দমবন্ধ হয়ে আসছিল! একনায়কতন্ত্র চলছে। শুধু পিসিমা-ভাইপোর কথাতেই হ্যাঁ দিতে হবে, একটু প্রতিবাদ করলেই শাস্তি নেমে আসবে, এ আর কতদিন সহ্য করা সম্ভব! তাই, প্রকৃত জননেতা, মানুষের নেতা শুভেন্দু অধিকারীর হাত ধরে বিজেপি’তেই যাব। আমার বিশ্বাস গণতান্ত্রিক ভাবে রাজনীতি করতে পারব। বিজেপির মতো রাজনৈতিক দলে গিয়ে, খোলা আকাশের নীচে বুক ভরে শ্বাস নেওয়ার মতোই, স্বাধীনভাবে রাজনীতি করতে পারব।” সূত্রের খবর অনুযায়ী, দাদার অসংখ্য অনুগামীই আগামীকাল বিজেপি’র মঞ্চে উপস্থিত থাকতে পারেন!

thebengalpost.in
শুভেন্দু অধিকারী র ছবি গেরুয়া পতাকায় ঢেকে গেল (মেদিনীপুর ওভারব্রিজ) :

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

জেলা থেকে রাজ্য, রাজ্য থেকে দেশ প্রতি মুহূর্তের খবরের আপডেট পেতে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক বুক পেজ এবং যুক্ত হোন Whatsapp Group টিতে