সংক্রমণে রাশ! মেদিনীপুরে সংক্রমিত ১৯, খড়্গপুরে ২৩, গত ৪৮ ঘন্টায় জেলায় আক্রান্ত ১৪৬, সুস্থ ৪০১ জন

Corona infection rate is little bit slow from earlier in Paschim Medinipur

thebengalpost.in
জেলায় ফের সংক্রমিত ১৬৭ :
.

দ্য বেঙ্গল পোস্ট, পশ্চিম মেদিনীপুর, ১৫ সেপ্টেম্বর : দীর্ঘ প্রায় এক-দেড় মাস ধরে রীতিমতো সাইক্লোনের গতিতে জেলায় এগিয়েছিল করোনা সংক্রমণ! অবশেষে, গত দু’একদিনে কিছুটা হলেও সংক্রমণের গতি বা তীব্রতা কমেছে। গত দু’দিনে (রবিবার ও সোমবার) ২৩৯ জন জেলায় সংক্রমিত হয়েছে, যা শেষ কয়েক সপ্তাহের তুলনায় অনেকটাই কম। অপরদিকে, সুস্থ হয়েছেন প্রায় চার শতাধিক! সোমবার ও মঙ্গলবার যথাক্রমে সুস্থ হয়েছেন ২৬৭ জন ও ১৩৪ জন। আজ (মঙ্গলবার), এখনো পর্যন্ত পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, জেলায় করোনা সংক্রমিত হয়েছেন মাত্র ২৭ জন। মঙ্গলবার সন্ধ্যা পর্যন্ত র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টের যে রিপোর্ট পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে পাওয়া গেছে, তাতে আক্রান্তের সংখ্যা মাত্র ২৭। ৮৪৫ টি নমুনা আজ পরীক্ষিত হয়েছে র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টের মাধ্যমে। পজিটিভ বা সংক্রমিত হওয়ার হার মাত্র ৪ শতাংশের কাছাকাছি। যেখানে গড় শতকরা হার একনো দশ শতাংশের আশেপাশে। উল্লেখ্য যে, গতকাল (সোমবার), ৯৮৪ টি নমুনা’র মধ্যে র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টে পজিটিভ এসেছিল মাত্র ৪৮ টি। এছাড়াও, মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজে সম্পন্ন হওয়া আরটি-পিসিআরে পজিটিভ এসেছিল ৭১ জনের। জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী (রাজ্যের করোনা বুলেটিন নয়) গতকাল (সোমবার) জেলায় মোট সংক্রমিত হয়েছিলেন ১১৯ জন। তবে, আজ (মঙ্গলবার) এখনো পর্যন্ত, জেলার আরটি-পিসিআরের তথ্য পাওয়া যায়নি। গত চব্বিশ ঘণ্টায় জেলায় করোনা সংক্রমিত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৭ জনের! মঙ্গলবার পর্যন্ত চিকিৎসাধীন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২৪০৬ জন (জেলার তথ্য অনুযায়ী)।

thebengalpost.in
জেলার করোনা সংক্রমণের গতি কিছুটা কমল :

.

পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা স্বাস্থ্য দফতরের সোমবারের রিপোর্ট অনুযায়ী, জেলায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১১৯ জন। এর মধ্যে, মেদিনীপুর শহরে সংক্রমিতের সংখ্যা ১৯ জন (অ্যন্টিজেন ও আরটি-পিসিআর) মিলিয়ে। শহরের মীরবাজার এলাকায় দু’জন প্রৌঢ়ের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে (৫০ ও ৫২)। এদিকে, মির্জাবাজার এলাকায় এক শিশুকন্যার (৪) রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। ভীমচকে এক প্রৌঢ় (৫৪) করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। এছাড়াও, ক্ষুদিরামনগর, কোতবাজার, হাতারমাঠ এলাকার তিন জন যুবকের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। অন্যদিকে, রাজাবাজার (হেড পোস্ট অফিস রোড), বটতলাচক, বড়আস্তানা, গয়লাপুকুর সহ সহ কয়েকটি এলাকাতেও সংক্রমিতের সন্ধান মিলেছে। শহরতলীর হোসনাবাদ ও পাঁচখুরি এলাকাতেও দু’জনের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে।

thebengalpost.in
সংক্রমণ‌ কিছুটা কমল সমস্ত এলাকাতেই :

.

অপরদিকে, রেলশহর খড়্গপুরে নতুন করে ২৩ জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে, যা গত কয়েকদিনের তুলনায় বেশ কম! গোলবাজারে এলাকায় একই পরিবারের তিন জন (প্রৌঢ় ৬৯, প্রৌঢ়া ৬৪ এবং যুবক ৩০) ছাড়াও, ছোটটেংরা, তালপুকুর লেন, ডিভিসি-জগন্নাথ মন্দির, খরিদা, মালঞ্চা, কৌশল্যা (২ জন), আইআইটি ক্যাম্পাসের ৩ জন, ইএফআর ক্যাম্পের ১ জন এবং রেল সূত্রে (রেলের বিভিন্ন আবাসনে ধাকা) প্রায় ৭ জন এবং খড়্গপুর গ্রামীণের ওয়ালিপুর (বড়কোলা) এরাকায় ২ জনের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে বলে জানা গেছে জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে।
এদিকে, গড়বেতা থানার অন্তর্গত বিভিন্ন এলাকায় ১৫ জনের সংক্রমণের খবর পাওয়া গেছে। গড়বেতার পায়রাউড়া (আমলাগোড়া), আগ্রা, শ্যামনগর, কেশিয়াড়ী, সোনাকড়া, লুধাশুলি, ধবনি, বগড়িডিহি (মঙ্গলপুর) প্রভৃতি এলাকা থেকে পাওয়া গেছে সংক্রমিতদের সন্ধান। চন্দ্রকোনা ১ ব্লকের মনগ্রল, রামজীবনপুর (ওয়ার্ড নং১০), কালিকাপুর, ক্ষীরপাইয়ের ৩ নম্বর ওয়ার্ড সহ গোপালপুর-ডিঙ্গাল (কামারবেড়িয়া) মোট ৫ জনের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। কেশপুরের ইচ্ছাইপুর ও বেলারয়া গ্রামের দুই যুবক করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা যায়। এদিকে, ঘাটাল পুরসভার কোন্নগর, কুশপাতা এলাকায় মোট ৪ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। দাসপুরের বড়শিমুলিয়া, কিশোরপুর, মজলিশপুর, রাধাকৃষ্ণপুর, লাউডা (একই পরিবারের ৩ জন), রাধানগর (সরবেড়িয়া) সৌলান, নুনিয়াগোড়া সহ বিভিন্ন এলাকায় মোট ১৪ জনের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। চন্দ্রকোণার মিত্রসেন এলাকায় একই পরিবারের ৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে জ‍ানা যায়। ডেবরায় ১১ জনের কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে বলে জানা যায়। তাঁরা লোয়াদা, দলপতিপুর, আলিশগড়, মানখন্ড, বাড়ুনিয়া, হরিহরপুর, ভোগপুর এলাকার বাসিন্দা বলে জানা যায়। পিংলার মঙ্গলপুর সহ বিভিন্ন এলাকায় মোট ৩ জন সংক্রমিত হয়েছেন বলে জানা যায়। সবংয়ের কাটিনা, বিকলবাড়, নিশ্চিন্ত খগড়াগেড়িয়া, কালিদহছড়া এলাকায় ৪ করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। শালবনীতে ওসিএলে কর্মরত এক ব্যক্তির (৩৭) করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে সোমবার। এদিকে, মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত দুই মহিলার করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে ১৪ ই সেপ্টেম্বরের আরটি-পিসিআর অনুযায়ী। তাঁরা দু’জন যথাক্রমে কোতোয়ালী থানা (৪৫ বছর বয়সী মহিলা) ও কেশপুর থানা (৫০ বছর বয়সী মহিলা)’র বাসিন্দা বলে জানা গেছে হাসপাতাল সূত্রে। তাঁদের করোনা উপসর্গ (জ্বর ও শ্বাসকষ্ট) থাকায় কোভিড টেস্টের জন্য নমুনা পাঠানো হয়েছিল বলে জানা গেছে।

.

জেলা থেকে রাজ্য, রাজ্য থেকে দেশ প্রতি মুহূর্তের খবরের আপডেট পেতে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক বুক পেজ এবং যুক্ত হোন Whatsapp Group টিতে