নেটিজেনদের রোষের মুখে মুম্বাইয়ের ফিল্ম বোর্ড থেকে পদত্যাগ করণ জোহরের

দ্য বেঙ্গল পোস্ট
করণ জোহর
Advertisement

বিশেষ প্রতিবেদন, সুদীপ্তা ঘোষ, ২৬ জুন : সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহত্যার পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায়, মূলত টুইটারে নেটিজেনদের ক্ষোভের মুখে পড়েছেন করণ জোহর, সলমান খান থেকে শুরু করে বড় বড় পরিচালক, প্রযোজকরাও। নেপোটিজম বা স্বজনপোষণের অভিযোগের জেরে অপমানিত হতে হয়েছে এই সমস্ত প্রযোজক-পরিচালকদের। এদের মধ্যেই অন্যতম নাম করণ জোহর

Advertisement

দ্য বেঙ্গল পোস্টনাটিজেনদের ক্ষোভ আর অপমানের মুখে পড়ে, একপ্রকার বাধ্য হয়েই তিনি “মুম্বাই অ্যাকাডেমি অফ দ্য মুভিং ইমেজ” ( যা সংক্ষেপে “MAMI ” নামে পরিচিত) থেকে ইস্তফা দিলেন তিনি। সূত্রের খবর অনুযায়ী, মুম্বাইয়ের ঐতিহ্যশালী এই ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল বোর্ড থেকে আজ ইস্তফা দিলেন তিনি।

ইন্ডাস্ট্রি সূত্রে খবর, কারুর সাথে আলোচনা না করে, এমনকি দ্বিতীয় বার এই সিদ্ধান্ত নিয়ে না ভেবেই, একপ্রকার তড়িঘড়ি করেই তিনি ইস্তফাপত্র জমা দেন। এই বোর্ডের সভাপতি পদে রয়েছেন অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন। সূত্রের খবর অনুযায়ী, করণের এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা জানা মাত্রই, দীপিকা করণ’কে ফোন করে বোঝানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু, করণ জোহর কোনো মতেই রাজি হননি তাঁর সিদ্ধান্ত থেকে ফিরে আসার।

দ্য বেঙ্গল পোস্ট
দীপিকা পাড়ুকোন

বিভিন্ন প্রযোজক-পরিচালক’দের মতে, ক্রমাগত নেটিজেনদের কাছে ‘নেপোটিজম’ এর অভিযোগে অপমানিত হচ্ছেন করণ! কিন্তু, এইসময় বলিউডের কেউই, এমনকি যে আলিয়া, বরুণ’কে তিনি লঞ্চ করেছিলেন, তাঁরাও পাশে এসে দাঁড়াননি। আর সেই অভিমানেই তিনি নাকি MAMI’র বোর্ড থেকে পদত্যাগ করেছেন। সূত্রের খবর অন্তত এমনটাই বলছে।
সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু যে গোটা বলিউড ইন্ডাস্ট্রিকে এইভাবে নাড়িয়ে দেবে কেউ ভাবতেও পারেনি! স্বজন-পোষণের তীর মূলত প্রথম থেকেই করণের দিকে। যদিও এটার শুরু হয়েছিল ৪ বছর আগে, যখন কঙ্গনা রানাওয়াত তাঁকে ‘মুভি মাফিয়া’ এবং নেপোটিজমের ঝান্ডাধারি বলেন। সুশান্তের মৃত্যু, সেই সুপ্ত আগ্নেয়গিরিকে জাগিয়ে তুলেছে। ক্রমাগত অপমান এবং পাশে কেউ না থাকার অভিমানেই প্রথমে করণ জোহর নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টের সবাইকে আনফলো করে দেন, কেবল মাত্র ভারতের প্রধানমন্ত্রী সহ ৮ জন কে বাদ দিয়ে। এদিকে, করণ জোহরের ‘কফি ইউথ করণ’ (Coffee With Karan) শোও বয়কট হওয়ার মুখে। ঘনিষ্ঠ সূত্রের খবর, এমন পরিস্থিতির জেরে ওই শো এর চ্যানেল কর্তৃপক্ষ নাকি ‘কফি ইউথ করণ’-এর নতুন সিজন আনতেই ভয় পাচ্ছেন, পাছে, সেই চ্যানেলকেই বয়কটের ডাক ওঠে! সবমিলিয়ে ২০২০ সালটি, বোধহয় করণ জোহরের কাছেও বেশ প্রতিকূল হয়ে উঠতে চলেছে!