এবার খড়্গপুর আর ঘাটালেও মেডিক্যালের উচ্চতর ডিগ্রি, ভ্যাকসিনের জন্য পশ্চিম মেদিনীপুরেও চলছে স্বাস্থ্যকর্মীদের তালিকা তৈরির কাজ

thebengalpost.in
পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা স্বাস্থ্য ভবন :
.

দ্য বেঙ্গল পোস্ট প্রতিবেদন, পশ্চিম মেদিনীপুর, ৩০ অক্টোবর: এবার পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার ঘাটাল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল এবং খড়্গপুর মহাকুমা হাসপাতালে পড়ানো হবে, মেডিক্যালের উচ্চতর ডিগ্রী ‘ডিএনবি’ (DNB- Diplomate of National Board)। এই ডিগ্রি এমডি (MD- Doctor of Medicine) এবং এমএস (Master of Surgery) এর সমতুল। এমবিবিএস (MBBS- Bachelor of Medicine and Bachelor of Surgery) পাশ করার পরই ডিএনবি পড়া যায়। এই ডিগ্রী প্রদান করে, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের অধীন স্ব-শাসিত (Autonomous) সংস্থা এনবিই (NBE- National Board of Examination)। স্নাতক স্তর অর্থাৎ এমবিবিএস পাশ করার পর, অনেকেই স্নাতকোত্তর বা পোস্ট গ্রাজুয়েশন কোর্স এমডি বা এম এস করেন। এই ডিএনবি ডিগ্রীও একটি স্নাতকোত্তর বা পোস্ট গ্রাজুয়েশন ডিগ্রি। এমবিবিএস পাশ করার পর নির্দিষ্ট পরীক্ষার মাধ্যমেই এই কোর্স করার সুযোগ পান চিকিৎসকেরা। এই মুহূর্তে কলকাতাসহ রাজ্যের বেশকিছু হাসপাতালে এই কোর্স করানো হয়। রাজ্য স্বাস্থ্য ভবন এই কোর্স পরিকাঠামো যুক্ত আরো বেশকিছু হাসপাতলে করাতে উৎসাহী। সেই সূত্রেই, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের কাছে এই বিষয়ে দরবার করেছিল। স্ব-শাসিতও সংস্থাও প্রাথমিকভাবে রাজি হয়েছে। তবে, তাঁরা খুব শীঘ্রই পরিকাঠামো খতিয়ে দেখতে, খড়্গপুর ও ঘাটালে আসবেন বলে জানা গেছে।

thebengalpost.in
ঘাটাল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল :

.
.

চিকিৎসক মহলের বক্তব্য, জেলা স্তরে এরকম গুরুত্বপূর্ণ দুটি কোর্স করানো হলে, ওই হাসপাতালগুলি প্রায় মেডিকেল কলেজের সমমানের হয়ে যাবে ধাপে ধাপে। সেক্ষেত্রে চিকিৎসা পরিষেবাও উন্নত হবে। রাজ্য স্বাস্থ্য ভবন থেকে সবুজসংকেত মেলার পর, জেলা স্বাস্থ্য ভবনও উদ্যোগী হয়েছে। জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ডাঃ নিমাই চন্দ্র মন্ডল জানিয়েছেন, “সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকে ডিএনডি পাঠক্রম চালু হয়ে যাবে। ঘাটাল ও খড়্গপুর হাসপাতাল দুটিতে প্রয়োজনীয় পরিকাঠামো রয়েছে। ভবিষ্যতে আরো বাড়ানো হবে। স্বাস্থ্য ভবনের নির্দেশক্রমে সমস্ত রকম প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।” জেলার উপ মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ডাঃ সৌম্যশঙ্কর সারেঙ্গীও জানিয়েছেন, “মেডিকেলের উচ্চতর ডিগ্রী জেলার দুটি হাসপাতলে পড়ানো হলে, সার্বিকভাবে চিকিৎসা পরিষেবা অনেক উন্নত হবে। এমবিবিএস পাশ করা চিকিৎসকদের সুযোগও বাড়বে, উচ্চতর ডিগ্রী অর্জনের ক্ষেত্রে।” প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, ঘাটাল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের, স্ত্রীরোগ বিভাগের ২ টি, ইএনটি বিভাগে ২ টি এবং শিশু বিভাগে ১ টি আসন থাকবে। অপরদিকে, খড়্গপুর মহকুমা হাসপাতালে স্ত্রীরোগ বিভাগে ২ টি ও শিশু বিভাগে ১ টি আসন থাকবে। কাউন্সেলিংয়ের মাধ্যমে এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে। আপাতত, পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা স্বাস্থ্য ভবন ওই দুটি হাসপাতালের পরিকাঠামো উন্নয়ন জোর দিচ্ছেন।

thebengalpost.in
খড়্গপুর মহকুমা হাসপাতাল :

.
thebengalpost.in
Kharagpur SDH- ENT Dpt.

এদিকে, ডিসেম্বর মাসের মধ্যেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন পৌঁছে যেতে পারে ধরে নিয়ে, কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে সমস্ত রাজ্যকে স্বাস্থ্য কর্মীদের তালিকা তৈরির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রাথমিকভাবে অনুমান, স্বাস্থ্যকর্মীরাই প্রথমে করোনা ভ্যাকসিন পাবেন। সূত্রের খবর অনুযায়ী, অক্টোবরের মধ্যেই এই তালিকা তৈরির নির্দেশ ছিল প্রতিটি রাজ্যের কাছে। প্রতিটি জেলা স্বাস্থ্যদপ্তর কেও এই নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। পশ্চিম মেদনীপুর জেলাতেও, স্বাস্থ্যকর্মীদের নামের তালিকা তৈরি হচ্ছে বলে জানা যায় জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে। ভারতে তৈরি ভ্যাকসিন হয়তো ২০২১ এর মাঝামাঝি সময়ে বাজারে আসতে পারে, কিন্তু তার আগেই অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন ডিসেম্বর নাগাদ পৌঁছে যেতে পারে ধরে নিয়েই এই তৎপরতা শুরু হয়েছে বলে জানা গেছে।

thebengalpost.in
পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা স্বাস্থ্য ভবন :

.

জেলা থেকে রাজ্য, রাজ্য থেকে দেশ প্রতি মুহূর্তের খবরের আপডেট পেতে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক বুক পেজ এবং যুক্ত হোন Whatsapp Group টিতে