ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় আমফান, বিপর্যয় মোকাবিলায় প্রস্তুত প্রশাসন

.

পরপর শক্তিবৃদ্ধি করে “সুপার সাইক্লোন”এ পরিণত হচ্ছে আমফান। যার জেরে আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে যে, পশ্চিমবঙ্গের উপকূলবর্তী এলাকায় ভারী বৃষ্টি ও ঝোড়ো হাওয়ার পাশাপাশি মঙ্গলবার থেকে কলকাতা সহ ৭ জেলায় হালকা থেকে প্রবল বৃষ্টি হতে পারে। শুধু তাই নয়, বুধবার বেশ কিছু জায়গায় ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনাও থাকছে।

.

বুধবারই পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের উপকূল অঞ্চলে আছড়ে পড়তে পারে ঘূর্ণিঝড় আমফান। যার ফলে পূর্ব মেদিনীপুর সহ পশ্চিম মেদিনীপুর, উত্তর ও দক্ষিণ চব্বিশ পরগণা সহ বিভিন্ন জেলায় ১০০-১২০ কিমি বেগে ঝোড়ো হাওয়ারও পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে।

.

ঘূর্ণিঝড়ের আগাম সতর্কতা পেয়ে বিপর্যয় মোকাবিলার প্রস্তুতি শুরু করেছে রাজ্য। বিপজ্জনক বাড়ি থেকে সরে আসার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। খোলা হয়েছে কন্ট্রোল রুমও। আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, বঙ্গোপসাগরে  ১৯-২০ মে মাছ ধরতে যেতে সম্পূর্ণ বারণ করা হয়েছে মৎস্যজীবীদের। এইদিনগুলিতে মৎসজীবীদের ওড়িশা উপকূল এড়িয়ে চলারও পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

এদিকে,ওড়িশায় পরিস্থিতি মোকাবিলায় তৈরি থাকতে বলা হয়েছে RAF, NDRF, রাজ্যের বিপর্জয় মোকাবিলা বাহিনীকে। কেন্দাপাড়া, ভদ্রক, জগৎসিংপুর ও বালাসোরে পৌঁছে গেছে বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী।

তৈরি থাকতে বলা হয়েছে হাসপাতালগুলিকেও।

.

জেলা থেকে রাজ্য, রাজ্য থেকে দেশ প্রতি মুহূর্তের খবরের আপডেট পেতে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক বুক পেজ এবং যুক্ত হোন Whatsapp Group টিতে