করোনা যোদ্ধা ও জয়ী’দের হৃদয়বন্ধনে বেঁধে নেওয়া হল ব্যতিক্রমী এই রাখি বন্ধনের দিনে

.

মণিরাজ ঘোষ, পশ্চিম মেদিনীপুর, ৩ আগস্ট : সময় বিরুদ্ধে। প্রতিকূলতা চতুর্দিকে। উৎসব-অনুষ্ঠানের পরিস্থিতি এ নয়! তবুও, ভয়কে জয় করে একটু সামাজিকতা, মেলবন্ধনের প্রচেষ্টা। রবি ঠাকুর’ই যে জাতির ভরসা, তারা তো বলবেই, “আমি মারের সাগর পাড়ি দেব বিষম ঝড়ের বায়ে, আমার ভয়ভাঙা এই নায়ে!” রাখি বন্ধন উৎসব’কে কেন্দ্র করেও রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের আহ্বান বাঙালি-হৃদয়ে আজও অমলিন। ১৯০৫ খ্রিস্টাব্দে ব্রিটিশের বঙ্গভঙ্গের অপচেষ্টার বিরুদ্ধে হিন্দু-মুসলিম ঐক্যের জয়গান গেয়ে তিনি রাখি বন্ধন পালন করার ডাক দিয়েছিলেন। আর, এই সময়েও, অজানা শত্রু অনুজীব “করোনা” র বিরুদ্ধে লড়াইয়ের অঙ্গীকারকেই আরো দৃঢ় করতে, দিনটিকে বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ করে তুলতে উদ্যোগী হয়েছিল, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তথা রাজ্য প্রশাসন। প্রতিটি জেলা ও ব্লক প্রশাসনকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল, ক্রীড়া ও যুব কল্যাণ দপ্তরের পরিচালনায় করোনা যোদ্ধা ও করোনা জয়ীদের সম্মানিত বা সংবর্ধিত করার বিষয়ে। ‘সংস্কৃতি দিবস’ রূপে অনাড়ম্বর ভাবে দিনটি পালন করে, স্বাস্থ্য সচেতনতার বার্তা দেওয়াই লক্ষ্য ছিল। তাই, নির্দেশ ছিল, রাখি পরিয়ে নয়, মাস্ক হাতে তুলে দিয়েই পালন করতে হবে, এবারের রাখি বন্ধন উৎসব।

.
thebengalpost.in
জেলাশাসক সম্মানিত করলেন জেলার উপ মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ডাঃ সৌম্যশঙ্কর সারেঙ্গী’কে :

পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা ক্রীড়া ও যুবকল্যাণ দপ্তরের উদ্যোগেও দিনটি পালন করা হল। জেলাশাসকের দপ্তরের মাল্টিপারপাস বিল্ডিং এ আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে, জেলার করোনা যোদ্ধা ও করোনা জয়ীদের সম্মানিত করা হল। স্বাস্থ্যকর্মী ও পুলিশকর্মীদের সংবর্ধনা দেওয়ার সাথে সাথে, ইতিমধ্যে যাঁরা করোনা’র বিরুদ্ধে লড়াই করে জয়লাভ করেছেন, তাঁদেরও সম্মানিত করা হল। উপস্থিত ছিলেন, জেলাশাসক ডঃ রশ্মি কমল‌ সহ প্রশাসনের আধিকারিক, জেলার কর্মাধ্যক্ষ গন। উপস্থিত ছিলেন, জেলার উপ মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক (১) ডাঃ সৌম্যশঙ্কর সারেঙ্গী, যিনি জেলার সকল স্বাস্থ্য আধিকারিক, চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য কর্মীদের প্রতিনিধি হিসেবে উপস্থিত হয়ে সম্মান গ্রহণ করলেন, জেলাশাসকের কাছ থেকে। তিনি বললেন, “এই সম্মাননা আমাদের আরো উদ্বুদ্ধ ও অনুপ্রাণিত করবে।”
করোনা-জয়ীদের পক্ষ থেকে সম্মান গ্রহণ করলেন, করোনা জয়ী দুই বিডিও সৌগত রায় (কেশিয়াড়ি) ও অভিষেক মিশ্র (চন্দ্রকোনা- ১)। সম্মান গ্রহণ করলেন, পুলিশ প্রশাসনের আধিকারিক বৃন্দও।

.

thebengalpost.in
সম্মানিত করা হল করোনা জয়ীদেরও :

জঙ্গলমহলেও পালিত হল, এই বিশেষ দিনটি, বিশেষ ভাবে। শালবনী ব্লক প্রশাসন ও শালবনী পঞ্চায়েত সমিতির উদ্যোগে দিনটি পালন করা হয়, করোনা যোদ্ধা ও করোনা জয়ীদের সম্মানিত করে এবং সাধারণ মানুষের হাতে মাস্ক তুলে দিয়ে।
thebengalpost.in
শালবনীতেও সংস্কৃতি দিবস ও মাস্ক বিতরণ কর্মসূচি :

.

জেলা থেকে রাজ্য, রাজ্য থেকে দেশ প্রতি মুহূর্তের খবরের আপডেট পেতে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক বুক পেজ এবং যুক্ত হোন Whatsapp Group টিতে