করোনা আবহেও ফের মাওবাদী আতঙ্ক! জঙ্গলমহলে ৩ কোম্পানি সিআরপিএফ, ঢাঙিকুসুম পরিদর্শনে ডিজি বীরেন্দ্র

.

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঝাড়গ্রাম, ৬ সেপ্টেম্বর : করোনা আবহের মধ্যেও জঙ্গলমহলে মাও আতঙ্ক! ঝাড়গ্রামের বেলপাহাড়ি ও সংলগ্ন এলাকায় গত কয়েক মাস ধরেই পড়ছে মাওবাদী পোস্টার। সম্প্রতি, ঠিকাদারের নাম করে তাকে কাজ বন্ধ রাখার হুমকি দেয়া হয়েছে। একইসাথে, ঢাঙ্গিকুসুম এলাকায় মাওবাদী আতঙ্কও ছড়িয়েছে, যদিও তা গুজব কিনা তদন্ত চলছে! এছাড়াও, বাঁশপাহাড়ি এলাকায় গুলি চলার ঘটনাও ঘটেছে। সবমিলিয়ে, ঝাড়গ্রাম এলাকায় যে মাও আতঙ্ক ছড়িয়েছে, তা বলাই বাহুল্য! এই পরিস্থিতিতে, কোনরকম ঝুঁকি নিতে রাজি নয় রাজ্য প্রশাসন তথা কেন্দ্র ও রাজ্যের গোয়েন্দা বিভাগ। তাই, একদিকে যেমন গতকাল (শনিবার), ২৮৪ ব্যাটেলিয়নের আরো ২ কোম্পানি এবং ২৩২ ব্যাটেলিয়নের ১ কোম্পানি সিআরপিএফ জওয়ান পৌঁছেছে, ঠিক তেমনই রাজ্য পুলিশের মহানির্দেশক বীরেন্দ্র সহ উচ্চপদস্থ পুলিশ আধিকারিকরা গতকাল ঝাড়গ্রামের ঢাঙ্গিকুসুম সহ কয়েকটি এলাকা পরিদর্শন করলেন এবং ঝাড়গ্রাম জেলা পুলিশের সঙ্গে বৈঠক সারলেন।

thebengalpost.in
ঝাড়গ্রামে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক :

.

ঝাড়গ্রাম শহরে নিরাপত্তা বিষয়ক এক উচ্চপর্যায়ের প্রশাসনিক বৈঠক হয় গতকাল। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ডিজি (Director General) বা মহানির্দেশক বীরেন্দ্র স্বয়ং। এছাড়াও, রাজ্য পুলিশের শীর্ষস্তরের আধিকারিকেরা এবং ঝাড়গ্রামের এসপি অমিত ভরত রাঠোর সহ জেলা পুলিশের আধিকারিকেরা এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। বেলা ১২ টা থেকে এসপি অফিসের কনফারেন্স হলে মিটিং শুরু হয়। মিটিং শেষে ঝাড়গ্রামের পুলিশ সুপার অমিত ভরত রাঠোর জানান, এলাকার নিরাপত্তা ও উন্নয়ন প্রসঙ্গে আলোচনা করতে এই উচ্চ পর্যায়ে বৈঠক। ডিজি বীরেন্দ্র সংক্ষিপ্ত প্রতিক্রিয়ায় জানিয়েছেন, “ঢাঙ্গিকুসুম এলাকা পরিদর্শন করে গেলাম, জেলা পুলিশের সাথে একটি বৈঠকও হল।”

thebengalpost.in
ঝাড়গ্রামে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক :

.
.

জেলা থেকে রাজ্য, রাজ্য থেকে দেশ প্রতি মুহূর্তের খবরের আপডেট পেতে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক বুক পেজ এবং যুক্ত হোন Whatsapp Group টিতে